আ.লীগের দুই পক্ষের কর্মসূচি, আমতলীতে ১৪৪ ধারা

প্রতিনিধি বরগুনা

এদিকে মামলা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আসামিদের পক্ষে একই স্থানে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে উপজেলা আওয়ামী লীগের আরেকটি অংশ। একই স্থানে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের কর্মসূচির কারণে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করেছে।

আমতলী পৌর যুবলীগের সভাপতি মো. আরিফ-উল-হাসান আরিফ বলেন, প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করায় তাঁদের কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। কর্মসূচির বিষয়ে পরবর্তী সময়ে জানানো হবে।

আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আমতলীর ইউএনও মো. আসাদুজ্জামান ১৪৪ ধারা জারির খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ১৪৪ ধারা বহাল থাকা অবস্থায় সব ধরনের সমাবেশ ও মাইকিং নিষিদ্ধ থাকবে।

গত ২১ মে রাতে আমতলী উপজেলার খুড়িয়া খেয়াঘাট এলাকায় মেয়র ও আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমানের ভাগনে আবুল কালাম আজাদকে কুপিয়ে ও হাত-পায়ের রগ কেটে জখম করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পরের দিন আহত ব্যক্তি বাদী হয়ে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জি এম মুসা, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জি এম ওসমানী হাসানসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে আমতলী থানায় চাঁদা দাবি ও হত্যাচেষ্টার মামলা করেন।

Loading...