সেলফ আইসোলেশনে দ. আফ্রিকার ক্রিকেটাররা

ভারত সফর করা দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটারদের ১৪ দিনের জন্য সেল্ফ আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের আক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সিরিজ স্থগিত হয়ে যায়। কিন্তু ভারতে থাকার কারণে করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে খেলোয়াড়দের সেল্ফ আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে।

সফরের প্রথম ওয়ানডে বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়। এরপর দ্বিতীয় ওয়ানডের আগে সিরিজটি স্থগিত করে দেয় দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। তাই না খেলেই দশ দিন পর বুধবার (১৮ মার্চ) নিজ দেশে ফিরেছে দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড়রা।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সাথে ছিলেন মেডিকেল অফিসার চিকিৎসক শুয়াইব মানজরা। দলের সাথে দুবাই, দিল্লি, ধর্মশালা, লক্ষ্ণৌ ও কলকাতা ভ্রমণ করেছেন তিনি। মানজরা বলেন, করোনা ভাইরাসে পরিস্থিতি দ্রুত পরিবর্তনের কারনে এই সফরটি বাতিল করা হয়।

মানজারা আরও বলেন, ‘এ সফরের আগে সিএসএ করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি মূল্যায়ন করেছিল । তখন আমরা ঝুঁকিকে খুব কম বলে মনে করেছি। কিন্তু সফরের সময় ঝুঁকি বেড়ে যায়। বিশ্ব পরিবেশের বিষয়টি বিবেচনা করে আমাদের এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।’

খেলোয়াড়রা তাদের পরিবার নিয়ে শঙ্কায় ছিলো বলেও জানান মানজারা। তিনি বলেন, ‘দেশের তাদের পরিবার কি অবস্থায় আছে, তা নিয়ে শঙ্কায় ছিল খেলোয়াড়রা।’

মানজারা আরও বলেন, ‘ভারতে খেলোয়াড়রা আইসোলোশনেই ছিল এবং চার্টার্ড ফ্লাইটে ভ্রমণ করেছে এবং স্যানিটাইজড পরিবেশের মধ্যেই ছিল।’

তিনি বলেন, ‘আমরা খেলোয়াড়দের এই রোগ সর্ম্পকে শিখিয়েছি। আমরা সুপারিশ করেছি, সকল খেলোয়াড়কে সেল্ফ আইসোলেশনে থাকতে হবে। চারপাশের মানুষদের সুরক্ষার জন্য অন্তত ১৪ দিন সামাজিক দূরত্বে থাকতে হবে।’

Loading...