শীর্ষে উঠতে চট্টগ্রামের দরকার ১৬৭ রান

প্রথমবারের মতো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও রাজশাহী রয়েল্যাস মুখোমুখি। দুই দলই নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে।  এবার যারা জিতবে তারাই পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ স্থান দখল করবে। এমন ম্যাচে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রানের লড়াকু সংগ্রহ দাঁড় করাতে পেরেছে রাজশাহী রয়্যালস। ফলে চট্টগ্রামকে করতে হবে ১৬৭৮ রান। 

রাজশাহীর ওপেনার লিটন দাস ৪৫ বলে ৫৬ রান করেন। ১০ বলে ২০ করেন আন্দ্রে রাসেল। ৮ বলে ২১ করেন ফরহাদ রেজা। চট্টগ্রামের বোলারদের মধ্যে রুবেল হোসেন ৪ ওভারে ২০ রান দিয়ে ৩টি উইকেট শিকার করেন। ৩ ওভারে ১৮ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন জিয়াউর রহমান।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রাজশাহী ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ সূচনা করে। দলীয় ১৬ রানে ওপেনার আফিফ ফিরে গেলেও দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৩৭ রানের পার্টনারশিপ করেন লিটন ও ইরফান। অষ্টম ওভারে ইরফানের বিদায়ের পর লিটনের সঙ্গে জুটি বাঁধেন শোয়েব মালিক।

১৩তম ওভারে জিয়াউর রহমানের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ হন লিটন। এরপরই ভেঙে পড়ে রাজশাহীর ব্যাটিং লাইন আপ। ১৬তম ওভারে বড় দুই ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেল ও রবি বোপারাকে ফিরিয়ে দেন রুবেল হোসেন।

১৭তম ওভারে বোলিংয়ে এসে নিজেই ক্যাচ নিয়ে অলক কাপালিকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান জিয়াউর। ১৯তম ওভারে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মুক্তার আলীর হাতে ধরা পড়েন শোয়েব মালিক। শেষদিকে ফরহাদ রেজা ঝড়ো ইনিংস খেলে দলের রান কিছুটা বাড়িয়ে দেন।  

দুই দলই ইতোমধ্যে প্লে-অফ নিশ্চিত করেছে। ১০ ম্যাচ খেলে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে রাজশাহী রয়্যালস। ১০ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে চট্টগ্রাম।

Loading...