রেল স্টেশনে দীর্ঘ লাইন, বিক্রি হচ্ছে ২৯ এপ্রিলের টিকিট

ঈদ যাত্রার আগাম টিকিট পেতে আজও রাজধানীর কমলাপুর রেল স্টেশনে দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। কোনোমতেই অপেক্ষা ও ভোগান্তি কমছে না টিকিটপ্রত্যাশীদের। অনলাইনে দেখা মিললেও ডাউনলোডে চরম বিপর্যয় দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন স্টেশনে আসা টিকিটপ্রত্যাশীরা।

 

 

সোমবার ২৫ এপ্রিল ভোর থেকে কমলাপুর রেল স্টেশনে রয়েছে মানুষের দীর্ঘ লাইন। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে গত শনিবার থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়। আজ সকাল ৮টা থেকে বিক্রি হচ্ছে ২৯ এপ্রিলের টিকিট।

 

কমলাপুর স্টেশন ঘুরে দেখা গেছে, কাউন্টারগুলোয় টিকিটপ্রত্যাশীদের দীর্ঘ সারি। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, কেউ গতকাল সন্ধ্যায় স্টেশনে এসেছেন। কেউ এসেছেন রাতে আবার কেউ এসেছেন সেহরিতে।

 

সকালে কথা হয় সময় সংবাদের সঙ্গে এক টিকিটপ্রত্যাশীর। তিনি বলেন, চারটি এসি টিকিটের জন্য এতক্ষণ অপেক্ষা করলাম। সারিতে আমি ২৫ নম্বর সিরিয়ালে ছিলাম। প্রায় ১৫ ঘণ্টা অপেক্ষা করেও এসির টিকিট পেলাম না। তাই বাধ্য হয়ে নন-এসির টিকিট কাটতে হলো।

 

সকাল ৮টা ২০ মিনিট নাগাদ কয়েকটি রেলপথের এসির টিকিট শেষ হয়ে গেছে বলে কাউন্টার থেকে জানানো হয়। তখন অপেক্ষমাণ টিকিটপ্রত্যাশীরা হইচই শুরু করেন।

 

তবে স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, আজ ঈদযাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রি চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। কমলাপুর রেল স্টেশনে কাউন্টার আছে ২৩টি। এর মধ্যে ১৬টি কাউন্টার থেকে ঈদযাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে।

 

 

কাউন্টার থেকে এক ব্যক্তি চার জনের টিকিট কাটতে পারছেন। তবে তার জন্য প্রত্যেক যাত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি দিতে হচ্ছে। ঈদ উপলক্ষে আগে বিভিন্ন সময় টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এজন্য এবার কালোবাজারি বন্ধে টিকিট কেনার সময় যাত্রীদের জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্মনিবন্ধন সনদের ফটোকপি কাউন্টারে দেখাতে হচ্ছে।

 

এবার ঢাকার কমলাপুর স্টেশনসহ পাঁচটি স্থানে অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। তবে ঈদযাত্রার প্রতিটি ট্রেনে নারী ও প্রতিবন্ধী যাত্রীদের জন্য একটি করে আলাদা কোচ সংযোজন করা হচ্ছে।

 

রেলওয়ে সূত্র জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে ছয়টি বিশেষ ট্রেন চলবে। এগুলো হচ্ছে: চাঁদপুর স্পেশাল দুই জোড়া, দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল এক জোড়া, শোলাকিয়া স্পেশাল দুই জোড়া, খুলনা স্পেশাল এক জোড়া। এসব ট্রেনের টিকিট অনলাইনে বিক্রি করা হবে না।

রেল স্টেশনে রেল স্টেশনে 

 

ঈদে নতুন আতঙ্ক দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি

 

প্রধানমন্ত্রী আমার রুবেলের জন্য কি একটু মাটি দেবেন না?’

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.