Ultimate magazine theme for WordPress.

ভোটের এমন পরিবেশ চাইনি: সিইসি

বিভিন্ন জায়গায় কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টির বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন,  ‘ভোটের এমন পরিবেশ আমরা চাইনি।’

শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে রাজধানীর উত্তরার ৫ নম্বর সেক্টরের আইইএফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নিজের ভোট দিয়ে বের হয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। উত্তরার ওই কেন্দ্রটি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের অধীনে।

ভোট কেন্দ্র থেকে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে, এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা কী? জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘কেন্দ্রে টিকে থাকার জন্য বিএনপির এজেন্টদের তো সামর্থ্য থাকতে হবে। বললো বের হয়ে যাও। আর বের হয়ে গেল, এটা হলে তো হবে না। বের হতে বললে সে বলবে আমি বের হবো না। সে প্রতিহত করবে।’

তখন তাকে প্রশ্ন করা হয়, সে কি পাল্টা মারধর করবে? জবাবে নুরুল হুদা বলেন, ‘মারধর করবে কেন? মারধর তো ভিন্ন কথা।’ এ ক্ষেত্রে তিনি দুটি নির্দেশনা দেন। বলেন, ‘প্রথমত, এমন কোথাও ঘটলে ম্যাজিস্ট্রেট  ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আমাদের কড়া নির্দেশ আছে তারা এজেন্টকে ফের কেন্দ্রে ঢুকিয়ে দিয়ে আসবে। দ্বিতীয়ত,  এজেন্টরা রিটার্নিং অফিসারের কাছে যাবে। ম্যাজিস্ট্রেট আছে তাদের কাছে যাবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘বললো বের হয়ে যাও, আর বের হয়ে গেল। আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ করলো না, তাহলে তো হবে না।’

ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি কম। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের কোনো দায় আছে কিনা? জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘আমরা পরিবেশ তৈরি করেছি। ভোটার আনার দায়িত্ব তো আমাদের না। প্রার্থীদের। তারা ভোটারদের আনবে।’

ভোটের সার্বিক পরিস্থিতিতে তিনি সন্তুষ্ট কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে নূরুল হুদা বলেন, ‘আমি সন্তুষ্ট। এখনো সন্তুষ্ট।’

ঢাকা  উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে সকাল ৮টায় ভোট শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.