অভিবাসী সংকটের জন্য পশ্চিমা দেশগুলোই দোষীঃ ভ্লাদিমির পুতিন

অভিবাসী সংকটের জন্য পশ্চিমা দেশগুলোই দোষীঃ রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট পুতিন

বেলারুশ-পোল্যান্ড সীমান্তে অভিবাসী সংকটের জন্য পশ্চিমা দেশগুলোকে দায়ী করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। স্থানীয় সময় শনিবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন Russia-1 কে এ কথা বলেন রুশ প্রেসিডেন্ট।

রাশিয়া বেলারুশের অন্যতম প্রধান মিত্র দেশ। বেলারুশের প্রতি ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) অভিযোগ— দেশটি হাজারও অভিবাসীকে পোল্যান্ডে অবৈধভাবে পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করতে উসকানি দিয়ে আসছে। একে ‘হাইব্রিড হামলা’ হিসেবে দেখছে ইইউ। এ জন্য বেলারুশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রক্রিয়া চলছে

 

এমতাবস্থায় পুতিন আশা প্রকাশ করে বলেন, বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো ও জার্মানির চ্যাঞ্চেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল এই ইস্যুতে দ্রুত কথা বলে অভিবাসীদের জার্মানিতে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করবেন।

পুতিন আরও বলেন, ভুলে গেলে চলবে না যে, অভিবাসীদের নিয়ে এ সংকটের উৎপত্তি কোত্থেকে। এ সংকটগুলোর জন্য কি বেলারুশই দায়ী? না, এসব সমস্যা পশ্চিমা ও ইউরোপীয় দেশগুলো নিজেরাই সৃষ্টি করেছে

ইরাক ও আফগানিস্তানের সংঘাতের কথা উল্লেখ করে পুতিন বলেন, এটি সামরিক উপায়েই মোকাবিলা করতে হবে। কারণ বেলারুশ সীমান্তে থাকা অভিবাসীদের মধ্যে ইরাকি কুর্দি ও আফগানরাও রয়েছেন। তারা আফগানিস্তানে গত ২০ বছর যুদ্ধ করেছে।

‘এতে বেলারুশের কিছুই করার নেই। অভিবাসনপ্রত্যাশীরা বেলারুশ হয়ে (পোল্যান্ড সীমান্তে) এসেছে বলে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। কারণ বেলারুশে এসব দেশ থেকে আগতদের জন্য ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার রয়েছে।

অভিবাসন সংকট সমাধানে পুতিনের পরামর্শ হচ্ছে— ইউরোপের গুরুত্বপূর্ণ দেশগুলোর সঙ্গে বেলারুশ সরকারের সরাসরি কথোপকথন পোল্যান্ড-বেলারুশ সীমান্তের অভিবাসী সংকটের সমাধান এনে দেবে বলে আমার বিশ্বাস।

Leave A Reply

Your email address will not be published.