ভোলায় মা ইলিশ শিকারের সময় ২৪ জেলে আটক

ভোলায় মা ইলিশ শিকারের অপরাধে ২৪ জন জেলেকে আটক করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুর থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত মৎস্য বিভাগ ও প্রশাসন অভিযান চালিয়ে তাঁদের আটক করে। এর মধ্যে ১০ জনকে গতকাল ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন শাস্তি দেওয়া হয়েছে। বাকি ১৪ জনকে আজ আদালতে হাজির করা হবে বলে জানা গেছে।

ভোলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম আজহারুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মেঘনা–তেঁতুলিয়া নদী ও সাগর মোহনায় নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মা ইলিশ শিকারের অপরাধে এসব জেলেদের আটক করা হয়েছে। এ সময় জেলেদের কাছ থেকে জাল, নৌকা ও মাছ জব্দ করা হয়েছে। এ অভিযানে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে পুলিশ ও কোস্টগার্ড সদস্যরা ছিলেন।

মা ইলিশের প্রজনন মৌসুমে (৪-২৫ অক্টোবর) বাংলাদেশের ৩৮টি নদীতে ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভোলার মেঘনা, তেঁতুলিয়া, ইলিশা ও সাগর মোহনায় বিভিন্ন উপজেলার জেলেরা মাছ ধরছিলেন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে মৎস্য বিভাগ ও প্রশাসন অভিযান তাঁদের আটক করে।

গতকাল সদর উপজেলার মেঘনা থেকে আটক হওয়া ১০ জনের মধ্যে ৬ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানা করেছেন। এদিকে একজনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানা গেছে।

গতকাল রাত থেকে আজ সকাল পর্যন্ত দৌলতখানে তিনটি ট্রলারসহ এক জেলেকে আটক করা হয়েছে। ওই ট্রলার থেকে ছয় হাজার মিটার জাল ও ইলিশ জব্দ করা হয়েছে। এ ছাড়া বোরহানউদ্দিন মৎস্য বিভাগ মেঘনায় অভিযান চালিয়ে দুজন জেলেকে আটক ও পাঁচ হাজার মিটার জাল জব্দ করেছে। অন্যদিকে চরফ্যাশন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তারা পুলিশের সহায়তায় ১১ জন জেলেকে আটক এবং তাঁদের ২টি ট্রলার, ২ হাজার মিটার জাল ও ১০ কেজি ইলিশ জব্দ করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.