Ultimate magazine theme for WordPress.

প্রথম ফাস্ট লেডি হওয়া হলো না জ্যোতিকা জ্যোতির!

সপ্তাহ দুই আগেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ইঙ্গিতটা দিয়েছিলেন গুণী অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। জানিয়েছিলেন, বলিউডের প্রবীণ খ্যাতিমান চলচ্চিত্র নির্মাতা শ্যাম বেনেগালের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে নির্মিতব্য বায়োপিক ‘বঙ্গবন্ধু’তে তাকে বাংলাদেশের প্রথম ফাস্ট লেডি শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব চরিত্রে বাছাই করা হচ্ছে। তবে সেটি কাগজে-কলমে চূড়ান্ত হয়নি। তাকেই পছন্দ কাস্টিং ডিরেক্টরের। এরপর সামাজিক মাধ্যমসহ বিভিন্ন মহল, ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা জ্যোতিকাকে আগাম অভিনন্দনে সিক্ত করতে থাকেন। কিন্তু শেষতক বেগম মুজিব হওয়া হলো না এই প্রিয়দর্শিনী অভিনেত্রীর।

গেল রবিবার (১ মার্চ) তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে নতুন এ চলচ্চিত্রটির জন্য ৫০ জন অভিনেতা-অভিনেত্রীর নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত তালিকায় দেখা যায়, ৪০ কোটি টাকা বাজেটের এই বায়োপিকে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে নেয়া হয়েছে অভিনেতা আরেফিন শুভকে আর মুজিবপত্নীর চরিত্রে থাকছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা।

বেনেগালের এই ছবিটিতে শেখ হাসিনার ছোটবেলার চরিত্রটি করবেন নুসরাত ফারিয়া। আর বড় শেখ হাসিনার চরিত্রটিতে দেখা যাবে জান্নাতুল সুমাইয়াকে। বঙ্গবন্ধুর মা শেখ সায়েরা খাতুন চরিত্রে থাকছেন দিলারা জামান। শেখ রেহানা চরিত্রে থাকছেন সামান্তা রহমান।

এছাড়াও ছবিটিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে থাকছেন- সৈয়দ নজরুল ইসলামের চরিত্রে অভিনয় করবেন দেওয়ান মো. সাইফুল ইসলাম সামাদ, শেরে বাংলা এ. কে ফজলুল হকের চরিত্রে শহীদুল আলম সাচ্চু, আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর চরিত্রে রাইসুল ইসলাম আসাদ, তাজউদ্দীন আহমেদের চরিত্রে চিত্রনায়ক ফেরদৌস, আবদুল হামিদ-দাদা চরিত্রে গাজী রাকায়েত, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর চরিত্রে তৌকীর আহমেদ, শওকত মিয়া চরিত্রে সিয়াম আহমেদ ও জেনারেল আইয়ুব খান চরিত্রে মিশা সওদাগর।

এছাড়াও বায়োপিকটিতে শেখ কামালের চরিত্রে বয়সভিত্তিক ভাবে অভিনয় করবেন কামরুল হাসান/ইশরাক তূর্য্য/ তৌহিদ, শেখ জামালের চরিত্রে শরীফ সিরাজ, মানিক মিয়ার চরিত্রে তুষার খান, খন্দকার মোশতাক আহমেদের চরিত্রে ফজলুর রহমান বাবু, শেখ মনির চরিত্রে মোস্তাফিজুর ইমরান নুর।

এ তালিকায় বাংলাদেশের শিল্পীরা সংখ্যায় বেশি হলেও ভারতের বেশ কয়েকজন অভিনয়শিল্পীকে দেখা যাবে।

আরও পড়ুন-
জ্যোতিকা জ্যোতিকেই পছন্দ কাস্টিং ডিরেক্টরের!

আগামী ১৭ মার্চ মুজিববর্ষের প্রথম দিনই ছবিটির জমকালো মহরত হওয়ার কথা রয়েছে। বাংলা ভাষায় নির্মিতব্য ছবিটিতে থাকবে হিন্দি সাবটাইটেলও। আগামী বছরের অর্থাৎ ২০২১ সালের ১৭ মার্চের আগেই ভারত ও বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিতব্য ছবিটি আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি দেয়া হবে। ছবিটি নির্মানে মোট বাজেটের ৬০ ভাগ বাংলাদেশ ও ৪০ ভাগ দিচ্ছে ভারত।

বায়োপিকটিতে বেনেগালের সহযোগী পরিচালক হিসেবে থাকছেন দয়াল নিহালানি। চিত্রনাট্য করেছেন, অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদি, শিল্প নির্দেশনায় থাকছেন নীতিশ রায়, কাস্টিং ডিরেক্টর হিসেবে আছেন স্বয়ং শ্যাম বেনেগালের কন্যা পিয়া বেনেগাল। ছবিটিতে বাংলাদেশের অভ্যুদয় থেকে পঁচাত্তরে ১৫ আগস্টের বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের নির্মম ট্র্যাজেডি ও তরুণ মুজিবের নানা মুহূর্তের দেখা মিলবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.