Ultimate magazine theme for WordPress.

এটা চুপ করে থাকার সময় নয়: দীপিকাকে সোনাক্ষী

জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) বাম ছাত্র সংগঠনের নেত্রী ছাত্র সমিতির সভাপতি ঐশী ঘোষের ওপর মুখোশধারীদের হামলার ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন বলিউড সেনশেসন দীপিকা পাডুকোন। এবার তার পাশে দাঁড়িয়ে তাকে এগিয়ে যাওয়ার সাহস জোগালেন আরেক বলি অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা।

গেল মঙ্গলবার দিল্লির জেএনইউ-তে সবরমতী হোস্টেলের সামনে আন্দোলনরত বামপন্থি শিক্ষার্থীদের যখন একটানা স্লোগান দিচ্ছিলেন তখন হঠাৎই সংহতি জানাতে তাদের মাঝে উপস্থিত হন দীপিকা। তিনি স্লোগানে শামিল না হলেও সেখানে কিছুক্ষণ অবস্থান নেন। এবং করজোড়ে ঐশী ঘোষের প্রতি শ্রদ্ধা ও শুভকামনা জানান।

এর পরই ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতারা দীপিকার বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণে নামেন। তাকে নিয়ে নানা বিতর্ক তৈরি করেন।

আজ শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে দীপকার নতুন ছবি ‘ছপক’। ছবিটির প্রচারণার উদ্দেশ্যেই দীপিকা মূলত  জেএনইউতে গিয়েছিলেন- এমন যুক্তি সামনে এনে ছবিটি বয়কটের ডাক দিয়েছে বিজেপি।

তবে কংগ্রেসসহ অন্যান্য বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর দীপিকার সিদ্ধান্তকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। সোনাক্ষী সিনহা ও নিমরাত কাউরের মতো বলিউড সুপারস্টাররা দাঁড়িয়েছেন দীপিকার পাশে।

দীপিকার সহকর্মী, পরিচালক অনুরাক কাশ্যপ বলেছেন, ‘ঐশীর সামনে করজোড় করে দীপিকা খুব শক্তিশালী একটা বার্তা দিয়েছেন। বুঝিয়ে দিয়েছেন, শুধু সংহতি নয়, ঐশীদের কষ্টটাও তিনি বোঝেন।’

এদিকে কবীর খান, শাবানা আজমি ও কার্তিক আরিয়ানদের মতো তারকারা যখন দীপিকার পাশে অবস্থান নিয়েছেন তখন সরব হয়েছেন সোনাক্ষীও। তিনিও দীপিকার পিছ চাপড়ে দিয়ে তাকে এগিয়ে যাওয়ার সাহস দিয়েছেন।

সামাজিকমাধ্যম টুইটারে এক বার্তায় সোনাক্ষী বলেন, ‘আপনি যে রাজনৈতিক দলেরই সমর্থক হন না কেন, আপনি কি অহিংসতার সমর্থক হন? কতদিন নিজেদের বেড়াজালে আটকে রাখবেন? দীপিকা ও সে সমস্ত মানুষদের স্যালুট, যারা প্রতিবাদে সামিল হয়েছে। এটা চুপ করে থাকার সময় নয়।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.