Ultimate magazine theme for WordPress.

‘আমার শ্বশুরবাড়ির কাউকে ছাড়বে না, তাহলে আমার আত্মা শান্তি পাবে না’

শ্বশুর বাড়ির লোকজনের অত্যাচার সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন ভারতের কর্ণাটকের জনপ্রিয় প্লে ব্যাক সিঙ্গার সুস্মিতা। গত সোমবার মা-বাবার বাড়িতেই ফ্যানে ওড়না ঝুলিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই শিল্পী। আত্মহত্যার পর বিখ্যাত গায়িকার সুইসাইড নোট আলোড়ন ফেলে দিয়েছে৷

২৭ বছরের গায়িকা দ্ব্যর্থহীণ ভাষায় শ্বশুরবাড়িকে যৌতুকের জন্য অত্যাচারকে দায়ি করেছেন৷

নিজের সুইসাইড নোট যেটি লিখেছেন সেটি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল৷ ‘মা আমায় ক্ষমা করে দিও, আমি আমার ভুলের সাজা পেয়েছি, আমার স্বামী ও শাশুড়ি আমায় টর্চার করছে, একদিন আমায় বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করছিল ৷ ওদের ছেড়ো না৷ শরৎ, বৈদেহী, গীতা আমার মৃত্যুর জন্যে সরাসরি দায়ি, আমি ওদের অনেক অনুরোধ করেছি তাও ওদের ভাবনাচিন্তায় কোনও পরিবর্তন আসেনি৷

এরপর উনি আরও লিখেছেনস ‘আমি ওদের বাড়িতে মরতে চায়নি, বিয়ের দিন থেকেই সব শুরু হয়ে গিয়েছিল৷ আমি এটা কাউকে বলিনি৷ আমার অন্তিম সংস্কার আমার বাপের বাড়িতে আমার ভাইয়ের হাতে যেন হয়৷ আমার শ্বশুরবাড়ির কাউকে ছাড়বে না তাহলে আমার আত্মা শান্তি পাবে না৷ মা তোমায় খুব মিস করব৷ ’

সূত্রের খবর অনুযায়ি বছর দেড়েক আগে শরত কুমারের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন সুস্মিতা৷ বিয়ের কিছু সময় পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে অশান্তি শুরু হয়েছিল৷ পরিস্থিতি এতটাই উত্তাল হয়েছিল যে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে মায়ের কাছে ফিরে যান তিনি৷

একাধিক কন্নড় সিনেমায় সুপারহিট গান গেয়ে ভাইরাল হয়েছিলেন সুস্মিতা৷

Leave A Reply

Your email address will not be published.