Ultimate magazine theme for WordPress.

দফায় দফায় মানববন্ধন করে ও মিলছে না ভারতে আটক ২৬ বাংলাদেশী

নুর আলম কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ২৯ আগষ্ট ২০২০

কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলার রমনা ইউনিয়নের রমনা ব্যাপারী পাড়ার ২৬ জন বাংলাদেশী ভারতে বৈধ ভিসা নিয়ে গিয়ে ভারতে লগডাউন ভাঙ্গার অপরাধে তাদের ৩মে ভারতের আসাম জেলার ধুবড়ি পুলিশ তাদের আটক করেন।কিন্তু আটককৃত ২৬ জন বলেছেন তাদের নাকি বলা হয়েছিলো সেই দিন লগডাউন খুলে দেওয়া হয়েছে তাই তারা বাংলাদেশে আসার জন্য রহনা করেন। আটককৃত ২৬ জনের স্বজনরা দফায় দফায় মানববন্ধন করলেও মেলেনি তাদের মুক্তি।তবে মুক্তি পেয়েছে বকুল মিয়া নামে একজনের অসুধ ও চিকিৎসার অভাবে মৃত লাশ, সেই মৃত লাশটি ৪ দিন পর ফিরে পায় বাংলাদেশ ও তাদের স্বজনরা।বুক ভরা আশা নিয়ে স্বজনরা স্বারক লিপি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মন্ত্রী ও পরাষ্টমন্ত্রী বরাবর কিন্তু তাতেও রয়েগেল আক্ষেপ।

সোমবার সকাল ১১ টায় চিলমারী নদী বন্দরে মানববন্ধন করেন স্বজনরা। নাহিদ হাসান নলেজ বলেন, যেখানে বাংলাদেশ ও ভারত বন্ধু রাষ্ট্র সেখানে কিভাবে তারা আমাদের (বাংলাদেশে) নিরিহ মানুষের উপর নিযার্তন চালাচ্ছেন। কেন? বকুল মিয়া চিকিৎসা ও অসুধের অভাবে মারা গেলেন। কেন? মানববন্ধন ও স্বারকলীপি দেওয়ার পরেও তাদের মুক্তি দেওয়া হচ্ছে না।যেখানে ভারতের অনেক মানুষ বাংলাদেশে বৈধ ও অবৈধ ভিসা নিয়ে থাকছেন, আমরা কি তাদের আটক বা কোনো নিযার্তন করেছি? আমরা শুনেছি জেলে নাকি আরো ২ জন অসুস্থ তাই ভারত সরকারের কাছে অনুরোধ তাদের সঠিক চিকিৎসা ব্যবস্থা করেদেন। আটককৃত একজনের মা বলেন মোর বেটাক মোর বুকত আনিদেও। বাংলাদেশ সরকারের কাছে অনুরোধ সবাইকে ফিরেয়ে দেও।

কবে মিলবে তাদের এই মুক্তি? তারা কি বকুল মিয়ার মতো লাশ হয়ে দেশে ফিরবে নাকি জীবিত হয়ে দেশে ফিরবে এমনটা বলছেন অনেকে। বুক ভরা কষ্ট নিয়ে স্বজনরা আশার আলোর দেখতেছেন তারা দ্রুত দেশে ফিরবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.