ফেরি সংকট, ঈদযাত্রায় বিপর্যয়ের শঙ্কা

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও শিমুলিয়া-মাঝিরকান্দি নৌপথে ফেরি সংকটে যাত্রী বিড়ম্বনা চরমে। ঘরমুখো মানুষের চাপ না বাড়তেই হিমশিম অবস্থা। এখনই ব্যবস্থা না নিলে ঈদযাত্রায় দেখা দিতে পারে বিপর্যয়।

 

দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়ায় পারাপারের অপেক্ষায় যানবাহনের দীর্ঘলাইন লেগেই আছে। শিমুলিয়া থেকে মাঝিরকান্দি এবং শুধু দিনের বেলা বাংলাবাজার নৌপথে ফেরি চলছে এখনো। গত আট মাস ধরে এই পথে ভারী যান পারাপার বন্ধ। এতে ঈদের আগে পারাপারে যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে।

 

 

গত ১৮ আগস্ট থেকে এখানে ফেরি চলাচলে তৈরি হয় অচলাবস্থা। ৮ নভেম্বর হতে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার দিনের বেলায় এবং পরবর্তীতে ১৩ ডিসেম্বর থেকে পদ্মা সেতুকে এড়িয়ে শিমুলিয়া থেকে মাঝিরকান্দি নৌপথে ফেরি চলাচল শুরু হয়। তবে ফেরি পর্যাপ্ত না থাকায় ঈদ যত ঘনিয়ে আসছে সংকটও ততই বাড়ছে।

 

 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পরিস্থিতি মোকাবিলায় চেষ্টা চলছে।

 

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ট্রাফিক পরিদর্শক এস এম জিয়াউল হায়দার বলেন, যে পরিমাণ গাড়ি আমাদের এই ঘাট দিয়ে পারাপার হয় সে তুলনায় ফেরির সংখ্যা কম। ৪টি ফেরি দিয়ে মূলত ঘাট চালানো লাগতাছে, সে কারণে আমাদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

 

 

বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক বলেন, শিমুলিয়া থেকে মাঝিরকান্দি যে রুটটা সেখানে একটি মাত্র ফেরিঘাট ছিল। এখন আমরা আরেকটি ফেরিঘাট করছি এবং যাতায়াতের সুবিধার জন্য লঞ্চ ঘাটটাকেও আমরা স্থানান্তর করছি।

 

শিমুলিয়া থেকে শুধু যাত্রী পারাপার করছে ৮৭ লঞ্চ ও ১৫৩টি স্পিডবোট।

ফেরি সংকট ফেরি সংকট ফেরি সংকট

 

ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু, কমলাপুরে উপচেপড়া ভিড়

 

নিউমার্কেট এ আজও দোকানপাট বন্ধ

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.