উড়ন্ত প্লেনের মধ্যেই আত্মহত্যা

উড়ন্ত প্লেনের মধ্যেই আত্মহত্যা

 

 

জীবন যুদ্ধে জয় পরাজয়,সফলতা ব্য র্থ তা সবই এই সংগ্রামের বিশেষায়িত অংশ।তবে সেই যুদ্ধে পিছু পা হয়ে আত্মহত্যা করার মানে সম্ভবত জীবনের কাছেই নিজের পরাজয়।আত্মহত্যা বরাবরের মতোই একটি ভুল সিদ্ধান্ত।

 

তবে এবার সেরকম ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে মাঝ আকাশেই উড়ন্ত প্লেনের মধ্যে আত্মহত্যা করেছেন এক যাত্রী।,যিনি মিশর থেকে রাশিয়াগামী একটি ফ্লাইটে ফিরছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে যে, বিমানের টয়লেটে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। খালিজ টাইমসের এক প্রতিবেদনে এমনই আশ্চর্যজনক দূর্ঘটনার কথা জানানো হয়।

 

মিশরের শার্ম এল-শেখ রিসোর্ট থেকে যাত্রা করা S7 Airelines এর একটি ফ্লাইটে করে রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সামারা শহরে ফিরছিলেন ওই যাত্রী। ফ্লাইট ছাড়ার কিছুক্ষণ পরই তিনি টয়লেটে যান। এরপর এক ফ্লাইট পরিচালক তাকে প্লেনের বাথরুমে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান।

 

এই ঘটনার পর বিমানটি কায়রোতে জরুরি অবতরণ করে। তবে ততক্ষণে চিকিৎসকরা ওই যাত্রীকে আর বাঁচাতে পারেননি। পরবর্তীতে ওই একই বিমানে করে তার মরদেহ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

ওই যাত্রীর পরিচয় প্রকাশ করা হয়েছে। বাজা টেলিগ্রাম নিউজ চ্যানেল জানিয়েছে, তার নাম আলেক্সান্ডার, বয়স ৪৮ বছর। ওই যাত্রী সম্ভবত গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.