পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইচেষ্টা, সিএনজিচালকের বুদ্ধিতে বাঁচলেন দম্পতি

রাজধানীর বনানী ফ্লাইওভারে পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালিয়েছে একটি চক্র। বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

 

 

এমনই একটি ঘটনার বিবরণ তুলে ধরেছেন এক ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের শিক্ষক। এদিন রাত ১২টার দিকে ছিনতাইয়ের চেষ্টার বিষয়টি নিজের ফেসবুক পোস্টে বিষয়টি তুলে ধরেছেন তিনি।

 

ফেসবুকে স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বামীর সঙ্গে ধানমন্ডি থেকে উত্তরা যাচ্ছিলাম। সে সময়ে বনানী ফ্লাইওভার থেকে নামার পর একটি মোটরসাইকেল আমাদের সিএনজিকে অনুসরণ করছিলেন, যা আমরা জানতাম না। যখন আমরা জানতে পারলাম, সেই মুহূর্তে আমরা বিমানবন্দর রোডের কাছাকাছি ছিলাম। মোটরসাইকেলে থাকা অজ্ঞাত ওই ব্যক্তি নিয়ন জ্যাকেট পরা ছিল, সে আমাদের সিএনজির ভেতরে লেজার লাইট দেখিয়ে সিএনজি মামাকে (চালক) এক কোনায় গাড়ি থামাতে বলছিলেন। কিন্তু সিএনজিচালক গাড়ি না থামিয়ে বলেন, সামনে আসেন, সামনে থামতেছি। আসলে আমরা বুঝতেছিলাম না কি ঘটতে যাচ্ছে…।

 

 

এরপর ওই ব্যক্তি অন্যপাশ থেকে আবার সিএনজিচালককে এবার পুলিশ পরিচয়ে গাড়ি সাইড করতে বলেন। তবে আলহামদুলিল্লাহ সিএনজিচালক যথেষ্ট স্মার্ট ছিল, তিনি আবারও বলেছিলেন, আপনি সামনে এগিয়ে আসেন, সামনে থামতেছি। তারপর সিএনজিচালক দ্রুতগতিতে চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

 

 

তিনি এবার সিএনজিচালকের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাকে পুলিশ পরিচয়ে থামতে বললেন, আপনি যে থামলেন না.. এরপর তিনি বিষয়টি শেয়ার করলেন। বলেন, ইদানিং একটা গ্রুপ ইফতারের পর থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত এ ধরনের ঘটনা ঘটতেছে। এরা একটি গ্রুপ। তারা বনানী ফ্লাইওভার থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত সক্রিয় থাকে। এছাড়াও কালশী ব্রিজের কাছে সক্রিয় থাকে।

 

 

তিনি স্টাটাসে আরও জানান, এ চক্রটি একা মেয়েদের টার্গেট করে। সেই সঙ্গে দম্পতিও টার্গেট করে এ ধরনের ছিনতাই করে থাকে। আমরা আজ ভাগ্যবান সিএনজি মামা (চালক) স্মার্ট ছিলেন।
পুরো বিষয়টি নিয়ে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের শিক্ষক সময় নিউজকে বলেন, আমরা সিএনজি চালকের জন্যই আমরা নিরাপদে বাসায় পেরেছি। ওই এলাকায় এ ধরনের আরও ঘটনা ঘটেছে। বিশেষ করে একা কোন মেয়ে অথবা দম্পতি থাকলে তারা টার্গেট করে সিএনজিকে থামিয়ে মোবাইল ও টাকা নিয়ে যায়। এমনকি একা মেয়েদের হেনস্তা করার কথা শুনেছি।

 

বিষয়টি নিয়ে খিলক্ষেত থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মুন্সী ছাব্বীর আহ্ম্মদকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

 

পরবর্তীতে থানার ডিউটি অফিসার এসআই স্বপ্না সময় নিউজকে জানান, আমরা এ ধরনের কোনো ঘটনার অভিযোগ আমাদের কাছে এখনো আসে নাই। কেউ অভিযোগ করলে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশ  পুলিশ  পুলিশ 

 

 

প্রাইমারি নিয়োগ পরীক্ষা: প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের ১৩ সদস্য আটক

 

 

ফরিদপুরে স্কুল ছাত্রের হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.