পশ্চিমবঙ্গের জঙ্গলে উদ্ধার ১২ উট কার?

পশ্চিমবঙ্গের জঙ্গলে উদ্ধার ১২ উট কার?

শুক্রবার ১২ নভেম্বর গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রতনপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে জঙ্গল থেকে উট গুলো উদ্ধার করে। এরপর উদ্ধার হওয়া উটগুলো নিয়ে যাওয়া হয় রতনপুর ক্যাম্পে।

 

 

অন্যদিকে তপন থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রামপাড়া চ্যাঁচড়ার আইহরা এলাকায় অভিযান চালায়। সেখান থেকে আরও দুটি উট উদ্ধার হয়।

 

উট বা উষ্ট্র কুঁজ-বিশিষ্ট একটি চতুষ্পদ প্রাণী। উটের পূর্বপুরুষেরা সম্ভবতঃ উত্তর আমেরিকায় আবির্ভূত হয়। পরে একভাগ বেরিং প্রণালী পার হয়ে এশিয়া ও উত্তর আফ্রিকায় চলে যায়, যাদের উত্তরসূরী হল ড্রোমেডারী ও ব্যাক্ট্রীয়ান উট। মরুভূমিতে বহুযুগ বাস করার ফলে আজ উট মরুভূমির জাহাজ হয়ে সহিষ্ণুতার প্রতীক।

 

১০ হাজার উট মেরে ফেলবে অস্ট্রেলিয়াঃ

আগামী কয়েক দিনে ১০ হাজার জংলি উট মেরে ফেলবে অস্ট্রেলিয়া। সংবাদ সংস্থা এএফপি এখবর নিশ্চিত করেছে।

দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার প্রত্যন্ত এলাকায় থাকা ওই উটগুলোকে হেলিকপ্টার থেকে গুলি করে মেরে ফেলা হবে। এই কার্যক্রম বুধবার থেকেই শুরু হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার আদিবাসী বিষয়ক কর্মকর্তারা বলছেন, এই পশুগুলো বেশি পরিমাণ পানি পান করছে বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য পর্যাপ্ত পানি থাকছে না। সম্প্রতি এই পশুগুলো পানির খোঁজে লোক বসতির কাছাকাছি চলে আসছে বলেও জানান তারা।

তীব্র খরায় কিছু কিছু শহর পানিশূন্য হয়ে পড়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। একই কারণে ভয়াবহ দাবানলেরও মুখে পড়েছে দেশটি যা এর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে মারাত্মক পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমে বলা হয়- দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের আনাঙ্গু পিৎজানজাতজারা ইয়ানকুনিৎজাতজারা বা সংক্ষেপে এপিওয়াই এলাকায়- আদিবাসী সম্প্রদায়ের প্রায় ২৩০০ মানুষ বসবাস করে।

“এই উটগুলো পানির খোঁজ করতে থাকায় তা প্রত্যন্ত এপিওয়াই এলাকায় আদিবাসী সম্প্রদায় এবং তাদের পশুপালনের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছে,” এপিওয়াই এলাকার ভূমি সংক্রান্ত নির্বাহী কমিটি এক বিবৃতিতে একথা জানায়।

সুত্রঃ বিবিসি বাংলা

Leave A Reply

Your email address will not be published.