দুুই বউকে নিয়ে এক ছাদের তলায়

সাদী আব্দুল্লাহ্

বউয়ের বেস্ট ফ্রেন্ডকে বিয়ে করেছেন আরমান! দ্বিতীয় বিয়েতে সম্মতি রয়েছে প্রথম স্ত্রীর!

দুই সতীনের এ এক অন্যরকম কাহিনি। তাঁদের দেখলে মনে হবে ‘সোল সিস্টার্স’। একই রকম সাজ-পোশাকে হামেশা ধরা দেন তাঁরা, সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের ফলোয়ার সংখ্যা কয়েক লক্ষ।

 

কথা হচ্ছে পায়েল মালিক ও কৃতিকা মালিকের। একটা সময় টিকটকের দুনিয়ায় শোরগোল ফেলেছিলেন তাঁরা, এবার ইনস্টাগ্রাম কাঁপাচ্ছেন পায়েল-কৃতিকা-আরমান। হ্যাঁ, পায়েল ও কৃতিকা দুজনেরই স্বামী আরমান মালিক। ইনস্টার পাশাপাশি ইউটিউবেও সুপারহিট এই পরিবার, তাঁদের চ্যানেলের নাম ফ্যামিলি ফিটনেস (Family Fitness)।

 

ইনস্টাগ্রামে কৃতিকার ফলোয়ার সংখ্যা ৩৭ লক্ষ, অন্যদিকে পায়েলকে ফলো করেন ১৯ লক্ষ নেটিজেন।

 

একসঙ্গে করওয়া চৌথ পালন থেকে, ছুটি কাটাতে যাওয়া কিংবা শপিং- হামেশা হাসিমুখে লেন্সবন্দি হন পায়েল-কৃতিকা। ইনস্টাগ্রামে অনেকেই তাঁদের ভিডিয়ো দেখে কনফিউজড হয়ে যান তাঁরা বেস্ট ফ্রেন্ড না সতীন?

 

 

দুই স্ত্রীকে নিয়ে এক ছাদের তলাতেই বসবাস করেন আরমান। তবে শুরু থেকেই এত মসৃণ ছিল না তিনজনের সম্পর্ক। আরমানের আসল নাম সন্দীপ, হরিয়ানার ছেলে সে। সন্দীপের প্রথম স্ত্রী পায়েল। ২০১১ সালেই সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন সন্দীপ-পায়েল। এরপর ২০১৮ সালে কৃতিকার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন সন্দীপ। আসলে ছেলের জন্মদিনের পার্টিতে পরিচয় সন্দীপ-কৃতিকার। পায়েলের বান্ধবী হিসাবেই সেখানে উপস্থিত ছিলেন কৃতিকা।

 

তবে প্রথম দেখাতেই নাকি কৃতিকার প্রেমে পাগল হয়ে যান সন্দীপ, এবং ৬ দিনের মধ্যেই পায়েলের সম্মতিতেই বিয়ে করেন কৃতিকাকে। কৃতিকার কথায়, ‘সন্দীপ আমাদের দুজনকেই ভালোবাসে, তাই আমরা বিয়ে করে নিয়েছি’।

 

 

যদিও পায়েলের পরিবার এই বিয়ে নিয়ে আপত্তি তোলে, এবং সন্দীপের কথায় বাপের বাড়ির লোকজনের প্ররোচনায় পায়েল একটা সময় তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙতে চেয়েছিল। সেই সময় দিল্লির এক ছয় তলা বিল্ডিং-এ উঠে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছিলেন সন্দীপ ওরফে আরমান। ২০ ঘন্টা ধরে চলেছিল সেই হাই-ভোল্টেজ ড্রামা। এরপর দিল্লি পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলায়। ঘটনা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসের।

 

হিন্দু ধর্ম মতে দুই বিয়ের মান্যতা না থাকায়, পরবর্তীতে ইসলাম গ্রহণ করে সন্দীপ ও তাঁর পরিবার। এখন সব দ্বন্দ্ব ভুলে দুই সতীন সুখে সংসার করছেন।

 

Edited by sa srk

Leave A Reply

Your email address will not be published.