জার্মানির ৪০ কূটনীতিককে পাল্টা বহিষ্কার রাশিয়ার

ইউক্রেন ইস্যুতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে জার্মানির নেওয়া নানা সিদ্ধান্তের পাল্টা প্রতিশোধ নিতে শুরু করেছে মস্কো। ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহ, রাশিয়ার নাকের ডগায় বসে খবরদারি, কথায় কথায় রুশ প্রেসিডেন্টকে হেয় করা এবং রাশিয়াকে বিশ্বে এক ঘরে করে দেওয়ার পরিকল্পনাসহ দেশটির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের এবার জবাব দিচ্ছে রাশিয়া।

 

মস্কো ও সেন্ট পিটার্সবার্গ থেকে জার্মান রাষ্ট্রদূত গেসা আন্দ্রিয়া ফন গেইরসহ ৪০ কুটনীতিক এবং তাদের পরিবারের কমপক্ষে ১০০ সদস্যকে বহিষ্কার করেছে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বহিষ্কৃতদের দ্রুত রাশিয়া ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রুশ প্রেসিডেন্টের এমন সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী ও অকল্পনীয় বলছে জার্মানি।

 

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, পশ্চিমে জার্মানি আমাদের সবচেয়ে ভালো বন্ধু ছিল। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের পাল্লায় পড়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে অহেতুক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যা আমাদের অবমাননার সামিল। চলতি মাসের শুরুর দিকে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক ঠিক কোনো কারণ ছাড়াই উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বার্লিন থেকে আমার রাষ্ট্রদূতসহ মোট ৪০জনকে বহিষ্কার করেছিল। তারপরও আমরা ধৈর্য্য ধরে এতদিন সহ্য করেছিলাম। ভেবেছিলাম জার্মানি তাদের সমস্যাটা বুঝবে কিন্তু আমাদের ধারণা ভুল। জার্মানির খবরদারী আর এমন অবন্ধুসুলভ আচরণ অগ্রহণযোগ্য। শুধুমাত্র জার্মানির কথাতেই

 

এদিকে রুশ প্রেসিডেন্টের এমন সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী বলে মন্তব্য করেছেন জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক। পুতিনের এমন একগুঁয়েমির কারণে অদূর ভবিষ্যতে রাশিয়াকে আরো কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে বলেও সতর্ক করেন তিনি।

 

এর আগে, চলতি মাসের ৫ তারিখে জার্মানিতে নিযুক্ত ৪০ জনসহ দেড়শ’ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছিল ফ্রান্স, অস্ট্রিয়া, ইতালিসহ ইইউর বেশ কয়েকটি দেশ।

 

ইউরোপ যাত্রা: লিবিয়ায় দুই শতাধিক বাংলাদেশি আটক

 

 

ইউক্রেনে পূর্ণ শক্তির হামলা শুরু করেছে রাশিয়া :জেলেনস্কি

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.