জামায়াত নেতারা বললেন, মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান

সিলেট মহানগর জামায়াতের উদ্যোগে বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনা সভা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমায়
সিলেট মহানগর জামায়াতের উদ্যোগে বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনা সভা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান ও দেশের সম্পদ বলে মন্তব্য করেছেন জামায়াত নেতারা।

 

বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী সিলেট মহানগর শাখার উদ্যোগে দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তারা এমন মন্তব্য করেছেন।

 

আজ শুক্রবার বেলা পৌনে তিনটায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জামায়াতের পক্ষ থেকে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এহসানুল মাহবুব জুবায়ের। অনুষ্ঠানে এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন,বিজয় দিবস আমাদের জাতীয় জীবনের গৌরবোজ্জ্বল দিন।

 

এই দিনেই আমাদের দামাল ছেলেরা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়ে মুসলিম অধ্যুষিত স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে বিশ্বর মানচিত্রে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন।

 

মুক্তিযুদ্ধের শহীদেরা আমাদের প্রেরণার উৎস। মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান ও দেশের সম্পদ। বিজয়ের ৫০ বছর পেরিয়ে গেলেও, যে মহান লক্ষ্যে এই দেশ স্বাধীন হয়েছিল, তা আজও বাস্তবায়িত হয়নি।

দেশে মানুষের ভোটাধিকার নেই, কথা বলার অধিকার নেই, গণতন্ত্র নেই। একাত্তরের বিজয় ছিল দেশের আপামর জনতার বিজয়।

 

এহসানুল মাহবুব আরও বলেন, বিজয়ের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসকে বর্তমানে একটি বিশেষ গোষ্ঠীর রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। জাতিকে বিভক্তির দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।

 

সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে বিজয়ের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করে দারিদ্র্য ও দুর্নীতিমুক্ত, সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

মহানগর জামায়াতের আমির মুহাম্মদ ফখরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি মোহাম্মদ শাহজাহান আলীর সঞ্চালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন মহানগরের সহকারী সেক্রেটারি আবদুর রব, জামায়াত নেতা মাওলানা আবদুল মুকিত, আলিম উদ্দিন প্রমুখ।

 

বক্তারা বলেন,বিজয়ের চেতনা ঐক্যের। রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করতে একটি পক্ষ জাতিকে বিভক্ত করার ষড়যন্ত্র করছে। তারা অতীতেও এমন ষড়যন্ত্র করেছিল। কিন্তু সফল হয়নি এবং ভবিষ্যতেও হবে না। আমাদের মহান বিজয়ের লক্ষ্য শুধু একটি ভূখণ্ড নয়, সর্বক্ষেত্রে মানুষের স্বাধীনতা নিশ্চিত করাই লক্ষ্য।

 

Edited by sa srk 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.