Ultimate magazine theme for WordPress.

সালাম না দেয়ায় সরকারি কর্মকর্তাকে চেয়ারম্যানের মারধর

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা এলজিইডি’র এলসিএস মনিটরিং অফিসার খন্দাকার আব্দুর রাজ্জাককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে সিঙ্গিামারী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এম.জি মোস্তফার বিরুদ্ধে।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ গেটে এ মারধরের ঘটনা ঘটে।

হাতীবান্ধা উপজেলা এলজিইডি’র এলসিএস মনিটরিং অফিসার খন্দাকার আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমি উপজেলা পরিষদ গেটে দাঁড়িয়ে ছিলাম। এ সময় সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এম জি মোস্তফা এসে আমাকে বলতে থাকে ‘ওই বেয়াদব আমি ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি, তুই আমাকে সালাম দিলি না কেন।’ এ বলেই আমাকে তার সাথে থাকা তার ভাই ও একজন ইউপি সদস্য মারধর করতে থাকে। পরে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করেন।

আব্দুর রাজ্জাক আরও বলেন, চিকিৎসা শেষে আমার উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো বলে জানিয়েছেন।

তবে মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এম জি মোস্তফা।

হাতীবান্ধা থানার ওসি ওমর ফারুক বলেন, বিষয়টি ইউএনও মহোদয় ফোনে অবগত করেছেন। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন ও উপজেলা প্রকৌশলী নজীর হোসেন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ওই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.