Ultimate magazine theme for WordPress.

যে আমল মুমিন বান্দার প্রতি আল্লাহর ভালোবাসা বেড়ে যায়

তোমরা যারা গুনাহ করে নিজের আত্মার ওপর নির্যাতন করছ, তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। অবশ্যই আল্লাহ সব গুনাহ মাফ করে দেন। আল্লাহর রহমত বান্দার জন্য সবচেয়ে বড় অনুগ্রহ। তার অনুগ্রহ ও ভালোবাসা পাওয়ার জন্য যে কাজ আল্লাহ তায়ালা দিয়েছেন, সেগুলো করলেই মুমিন বান্দার প্রতি সেগুলো যথাযথ ভাবে আদায় করেলে আল্লাহর ভালোবাসা বেড়ে যাবে।

কেননা আল্লাহ তাআলা বান্দার জন্য অসংখ্য নেয়ামতে দুনিয়া ভরপুর করে দিয়েছেন। কেননা আল্লাহর রহমত ছাড়া কোনও নবীও জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না। সুতরাং বান্দার উচিত আল্লাহর ভালোবাসা পেতে এ আমলগুলো বেশি বেশি করা। আর তা হলো–

>>বুঝে বুঝে কুরআল অধ্যায়ন করা
কুরআনুল কারিম তেলাওয়াতের পাশাপাশি কুরআনের ভাব ও ভাষা বুঝে বুঝে কুরআন অধ্যয়ন করা।

>> জিকিরে মাশগুল থাকা
ব্যস্ততা কিংবা অবসর, সব সময় আল্লাহর জিকিরে নিজেদের জবানকে সিক্ত রাখা। আল্লাহর জিকিরে বান্দার সঙ্গে আল্লাহর ভালোবাসা বেড়ে যায়।

>> বেশি বেশি সুন্নাতের আমল করা
ফরজ ও ওয়াজিব বিধান পালনের পর বেশি বেশি সুন্নাতের আমল ও নফল ইবাদত করা। সুন্নাত ও নফল ইবাদত দ্বারাই বান্দার ইবাদতের প্রতি আগ্রহ বেড়ে যাবে। আর তাতে আল্লাহর সঙ্গে বান্দার মহব্বত সৃষ্টি হবে।

>> সৎ মানুষের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখা
যারা আল্লাহর বিধানগুলো যথাযথ মেনে চলে, এমন ব্যক্তির সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা। প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের এ হাদিসের ওপর যথাযথ আমল করা। আর তাহলো- ‘কাউকে ভালোবাসতে হবে আল্লাহ ও তার রাসুলের জন্য আবার কাউকে ঘৃণা করলেও তা করতে হবে আল্লাহ ও তার রাসুলের জন্য।’

>> আল্লাহর গুণবাচক নামের জিকির করা
আল্লাহ তাআলার ৯৯টি নাম রয়েছে। যারা এ নামগুলো পড়বে, আমল করবে, তাদের জন্য রয়েছে জান্নাতের ঘোষণা। সুতরাং মানুষের উচিত আল্লাহর গুণবাচক নামের আমল নিজেদের মধ্যে বেশি বেশি জারি করা। আর এতে আল্লাহর সঙ্গে বান্দার সুসম্পর্ক তৈরি হয়। বান্দার অন্তরে আল্লাহর ভালোবাসা বৃদ্ধি পায়।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তার ভালোবাসা লাভে কুরআন সুন্নাহর বিধানগুলো যথাযথ আদায়ের পাশাপাশি উল্লেখিত আমলগুলো সুন্নত তরিকায় যথাযথ পালন করার তাওফিক দান করুন। দুনিয়া ও পরকালে আল্লাহর ভালোবাসা লাভ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.