Ultimate magazine theme for WordPress.

যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সন্তানদের আ.লীগ থেকে বহিষ্কারের দাবি

সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী, জামায়াত-শিবির ও যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সন্তানদের আওয়ামী লীগসহ সকল ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন থেকে বহিষ্কারের দাবিসহ মোট ৮টি দাবি জানিয়েছে বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় জাতীয় কমিটি।

শুক্রবার (১২ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান সংগঠনটির প্রধান সমন্বয়কারী মেহেদী হাসান।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধারা জীবন বাজি রেখে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশকে স্বাধীন করেছেন। দেশবাসী জানে আওয়ামী লীগ অসম্প্রদায়িক, জামায়াত ও যুদ্ধাপরাধী বিরোধী একটি দল। প্রবীণ এই রাজনৈতিক দলটি এ পর্যায়ে আসতে অনেক ত্যাগী নেতাকর্মী হারিয়েছেন। তবুও কখনো অন্যায়কে প্রশ্রয় দেননি। বাংলাদেশের জনগণ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে এবং বিপক্ষে দুটি ধারায় বিভক্ত। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে প্রধান শক্তি হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আর মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি কাছে বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াত-শিবির, যুদ্ধাপরাধী গোষ্ঠী ও তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দানকারী বিএনপিসহ অন্যান্য প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী।’

সংবাদ সম্মেলনে তিনি প্রধানমন্ত্রীর নিকট ৮টি দাবি জানান।

এর মধ্যে- সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী, জামায়াত-শিবির ও যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সন্তানদেরকে আওয়ামী লীগসহ সকল ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন থেকে বহিষ্কার করতে হবে; যে সকল জনপ্রতিনিধি আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র বিরোধী ও মুজিব আদর্শ বিরোধী পরিবারের সদস্য হয়ে তথ্য গোপন করে দলীয় প্রার্থী হিসেবে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন জরুরি ভিত্তিতে আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং আওয়ামী লীগসহ ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক পদ সমূহে বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমে পদায়ন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.