Ultimate magazine theme for WordPress.

মোদিবিরোধী আন্দোলন দুই দেশের সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে না : মোমেন

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন ঘিরে যে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ চলছে তাতে দুই দেশের সম্পর্কে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। আজ বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) গুলশান-২ এর বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ পার্কে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে কয়েকটি সংগঠনের আন্দোলন দুই দেশের সম্পর্কে কোনও প্রভাব ফেলবে না। দুই দেশের সাধারণ জনগণ নরেন্দ্র মোদীর সফর নিয়ে খুবই খুশি।
ড. মোমেন আরো বলেন, মানুষের বক্তব্য প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। কেউ কেউ হয়তো মোদির সফরের বিরোধিতা করছেন। তবে দুই দেশের বেশির ভাগ সাধারণ মানুষ এতে খুশি।
প্রেসক্লাবের সামনে দুই-চার জন এনে বিক্ষোভ করলে কী হবে? দুই দেশের সম্পর্কে সেটির কোনও প্রভাব পড়বে না জানিয়ে বলেন, রাষ্ট্রীয় অতিথি যারা ঢাকা সফর করছেন বা করবেন, বাংলাদেশ সরকার তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবে।
এছাড়া ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরে বেশ কয়টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এক দেশের প্রধানমন্ত্রী বা প্রেসিডেন্ট যখন আরেক দেশে সফরে যান তখন এমন চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয় থাকে। এবারও থাকবে। তবে এবার মোদির সফর মূলত বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী নিয়ে। তবুও আমাদের পক্ষ থেকে কিছু বিষয় থাকবে। ইতোমধ্যে কিছু বিষয়ে উভয়পক্ষ সমঝোতায় এসেছে। পাঁচটির বেশি চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে।
করোনা পরিস্থিতি আবারও খারাপের দিকে যাওয়ায় সামাজিক দূরত্ব এবং অন্যান্য সতর্কতা মেনে এসব অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে বলেও জানান তিনি।
এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ডিএনসিসির উদ্যোগে গুলশান-২ এর বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ পার্কে ‘ফ্রেন্ডশিপ টু অল, মেলাইস টুয়ার্ডস নন’ শিরোনামে এক চিত্রপ্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.