Ultimate magazine theme for WordPress.

বীমা খাতে উৎসাহ বাড়াতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

বীমার টাকা গ্রাহক যেন ঠিকভাবে পায়ে সে বিষয়ে বীমা কোম্পানিকে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বীমা নিয়ে সাধারণ মানুষের সচেতনতা কম। এই খাতে উৎসাহ বাড়াতে কাজ করছে সরকার।

রবিবার (১ মার্চ) সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) বীমা দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বীমা কোম্পানিগুলোর মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হতে পারে। বীমার কার্যক্রম ডিজিটার পদ্ধতি করলে দুর্নীতি অনেকাংশে কমে যাবে। বীমার প্রতি গ্রাহকের আস্থা আরও বাড়বে।

শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুকে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় জড়িয়ে কারাবন্দি করা হয়। জনগণের আন্দোলনের মুখে আইয়ুব খান সেই মামলা প্রত্যাহার করেন। বঙ্গবন্ধু মুক্তি পেলে একটি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি থেকে তাকে চাকরির প্রস্তাব দেওয়া হয়। রাজনীতির পাশাপাশি তিনি জীবন-জীবিকার জন্য ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে কাজ করেছেন। তাই তিনি বিমার গুরুত্ব জানতেন। এজন্য ৪৯টি বিমা কোম্পানিকে তিনি জাতীয়করণ করেন। পরে তিনি বিমা করপোরেশনের উন্নয়নে আইন প্রণয়ন করেন।

তিনি বলেন, একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তোলার দায়িত্ব নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। কোনও রিজর্ভ মানি ছিল না। যুদ্ধের বছর কোনও উৎপাদন হয়নি। ধ্বংসস্তূপের ওপর দাঁড়িয়ে একটি রাষ্ট্র গঠন, কাঠামো প্রণয়ন ও সংবিধান দিয়ে গেছেন তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.