Ultimate magazine theme for WordPress.

দেশে ২ হাজার ৩১৪ জন হোম কোয়ারেনটাইনে: আইইডিসিআর

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আতঙ্কে দেশে ২ হাজার ৩১৪ জন হোম কোয়ারেনটাইনে রয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)-এর পরিচালখ ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেনটাইনের ক্ষেত্রে কোনও আপস করা হবে না জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘কেউ হোম কোয়ারেনটাইন না মানলে তাকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনে রাখা হবে।’

রবিবার (১৫ মার্চ) রাজধানীর মহাখালীর আইইডিসিআর-এর কার্যালয়ে করোনা ভাইরাস নিয়ে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে তিনি এসব তথ্য জানান।

ডা. ফ্লোরা বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ২৩১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এদের মধ্যে পূর্বে জানানো ৫ জনের শরীরেই করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘শনিবার ইতালিফেরত ১৪২ জনের সবাই প্রশাসনের সহায়তায় বাড়ি ফিরেছেন। অন্য যেসব ফ্লাইতে ইতালি প্রবাসীরা ফিরেছেন তাদের সবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে। গতকাল শনিবার ইতালি ফেরত যে দুজনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হওয়ার কথা জানানো হয়েছিল তারা সুস্থ আছেন।’

ওই দুজনের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘গতকাল যে দুজনকে সনাক্ত করা হয়েছে দুজনই পুরুষ। একজনের বয়স ২৯, ৪০ এর বেশি বয়স্ক অপরজন ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা ভুগছেন। দুজনেরই জ্বর ও কাশি ছিল।’

এর আগে গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথমবার করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি সনাক্তের কথা জানায় আইইডিসিআর। তখন তিনজনের শরীরে করোনা সনাক্ত হয়। তবে এরইমধ্যে তিনজনই কোয়ারেনটাইনে থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন বলে জানিয়েছেন ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.