Ultimate magazine theme for WordPress.

দুই দিনের ব্যবধানে আরও ২ বাংলাদেশিকে হত্যা, লাশও নিয়ে গেছে

মাত্র দুই দিনের ব্যবধানে সীমান্তে  শাহাবুল ইসলাম (৩৫) ও আবু সাঈদ (২৫)  নামের আরও দুই বাংলাদেশিকে হত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ’র সদস্যরা।  তাদের লাশও নিয়ে গেছে প্রতিবেশী দেশটির সীমান্তরক্ষীরা।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) ভোরে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীর পাড়িয়া সীমান্তে এবং  সকালে লালমনিরহাটের বুড়িমারী সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে।

সকালে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী বামনদল সীমান্তের ৮৩৬ ও ৮৩৭ নম্বর মেইন পিলার এলাকায় আবু সাঈদ পিটিয়ে হত্যা করে বিএসএফ। পরে সেখান  থেকে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে গেছে ভারতীয় মেখলিগঞ্জ থানা পুলিশ।

নিহত আবু সাঈদ পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের বামনদল এলাকার বেনজির রহমানের ছেলে।

সীমান্তবাসী, বিজিবি ও নিহতের পরিবার জানায়,  ওই সীমান্তের তামাক ক্ষেতে কাজ করছিলেন আবু সাঈদ। শুক্রবার সন্ধ্যায় তাকে চোরাকারবারী সন্দেহে বিএসএফ আবু সাঈদকে মারপিট করে বিদ্যুতের পিলারের কাছে ফেলে চলে যায়। এতে তার মৃত্যু হলে শনিবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে ভারতীয় মেখলিগঞ্জ থানা পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

নিহত আবু সাঈদের বাবা বেনজির রহমান অভিযোগ করে বলেন, ‘সীমান্তের তামাক ক্ষেত থেকে তাকে ধরে নিয়ে গিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে মরদেহ আবার তামাক ক্ষেতে ফেলে রেখে যায়। আমার ছেলে আবু সাঈদের মরদেহ ফেরত আনার জন্য বিজিবির নিকট সহযোগিতা চেয়েছি। এখন পর্যন্ত মরদেহ পাইনি।’

বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) রংপুর ৬১ ব্যাটালিয়নের বুড়িমারী কোম্পানি কমান্ডার আবুল হোসেন  জানান, নিহতের মরদেহ এলে ময়নাতদন্তে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় পতাকা বৈঠকের জন্য বিএসএফকে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

এদিকে শনিবার ভোরে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার পাড়িয়া সীমান্তের ৩৮৪/ ৩-৪ সাবপিলারের এলাকায় শাহাবুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করে বিএসএফ। হত্যার পর তার লাশও নিয়ে গেছে তারা।

নিহত শাহাবুল ইসলাম (৩৫) আমজানখোর ইউনিয়নের তারাঞ্জুবাড়ি গ্রামের তমিজউদ্দিনের ছেলে ।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার পাড়িয়া সীমান্ত এলাকায় নিহত শাহাবুলের মরদেহ বিএসএফ সদস্যরা ভারতে নিয়ে যায় । গ্রামবাসীরা দাবি করছে পাড়িয়া সীমান্তের বিপরীতে ভারতের ইসলামপুর থানার বারঘোরিয়া বিএসএফের টহলদলের গুলিতে শাহাবুল নিহত হন ।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি (তদন্ত) এ কে এম আতিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নিহত শাহাবুলের মরদেহ ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী নিয়ে গেছে ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ৫০ বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর হুমায়ুন কবির জানান, ভারতের পুলিশের কাছে নিহতের লাশ হস্তান্তর করেছে বিএসএফ। পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে নিহতের লাশ দেশে ফেরত দেওয়ার কথাও জানিয়েছে তারা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.