Ultimate magazine theme for WordPress.

গভীর রাতে বস্তিতে আগুন, পুড়ল ৭০ ঘর

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় আগুনে বস্তির প্রায় ৭০/৮০টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তবে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে একটি সিএনজি পাম্প ও জেলা কারাগারসহ জেলা রেজিস্ট্রি অফিস।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে রাত ৩টায় বস্তিতে ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ৭টি ইউনিট এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস ও বস্তিবাসী।

Nganj-pic-3

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে যান নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিক। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত বস্তিবাসীর সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের খোঁজখবর নেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের কাছে সিএনজি পাম্প সংলগ্ন জলাধারের ওপর মুলি বাঁশ ও টিন দিয়ে তৈরি ভাসমান ওই বস্তিতে বেশ কয়েকটি টং দোকান, ঝুটের গুদাম ও বাড়িসহ প্রায় ৭০টি স্থাপনা পুড়ে গেছে। ওই বস্তিতে কয়েক মাস আগেও ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৩০/৩৫টি ঘর পুড়ে যায়। এছাড়াও প্রতি বছর এ বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

বস্তির পাশেই একটি সিএনজি স্টেশন থাকায় মানুষ বেশি আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। আগুনের খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ শহরের মন্ডলপাড়া, হাজীগঞ্জ ও আদমজী ফায়ার স্টেশনের ৭টি ইউনিটের দমকল বাহিনীর কর্মীরা আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে।

Nganj

এ সময় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। ঢাকা থেকে আসা এবং দূরপাল্লার অর্ধ শতাধিক যানবাহন আটকা পড়ে। ফলে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন জানান, ৭টি ইউনিটের এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। তবে আগুনে কেউ হতাহত হয়নি। আগুনের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তদন্তের পর নিশ্চিত করে বলা যাবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.