Ultimate magazine theme for WordPress.

গণপিটুনিতে রেনু হত্যা: আরও ৫ আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে

রাজধানীর উত্তর-পূর্ব বাড্ডায় সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করাতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনু (৪০) নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৫ আসামিকে ৩ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেন শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন- মুরাদ (২২), সোহেল রানা (৩০), বিল্লাল হোসেন (২৮), আসাদুল ইসলাম (২২) ও রাজু আহমেদ (২৩)। 

এর আগে বুধবার (২৪ জুলাই) মধ্যরাতে বাড্ডার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ নিয়ে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আদালতে সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা লিয়াকত আলী এসব তথ্য জানিয়েছেন। 

তিনি জানান, এদিন দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আবদুর রাজ্জাক মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ও অজ্ঞাতনামা আসামিদের খুঁজে বের করতে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে আসামিদের আদালতে হাজির করেন। শুনানি শেষে আদালত প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

এর আগে এ ঘটনায় গণপিটুনিতে নেতৃত্ব দেয়া হৃদয়সহ ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে ওয়াসিম (১২) নামে এক কিশোরকে কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে। জাফর পাটোয়ারি নামে এক আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। মূল আসামি হৃদয়কে গতকাল বুধবার (২৪ জুলাই) ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত শনিবার সকালে উত্তর-পূর্ব বাড্ডার বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। স্কুলটিতে নিজের চার বছরের মেয়েকে ভর্তি করানোর জন্য তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন তিনি। রাজধানীর মহাখালীতে ৪ বছরের মেয়ে ও মাকে নিয়ে থাকতেন রেনু। দুই বছর আগে স্বামীর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়। তার ১১ বছরের একটি ছেলেও রয়েছে। বিচ্ছেদের পর থেকে ছেলেটি বাড্ডায় বাবার সঙ্গে থাকে।

এ ঘটনায় ওই রাতেই বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ৪০০-৫০০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন নিহতের ভাগ্নে সৈয়দ নাসির উদ্দিন টিটু।

Leave A Reply

Your email address will not be published.