Ultimate magazine theme for WordPress.

‘কোনো নারী বিয়ে পড়াতে পারবেন না’- হাইকোর্ট

বাংলাদেশের সামাজিক ও বাস্তব অবস্থার প্রেক্ষিতে নারীরা নিকাহ রেজিস্ট্রার হতে পারবে না মর্মে সরকারের সিন্ধান্ত বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। বুধবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ন কবির। তিনি জানান, ২০১৪ সালে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়িয়ার পৌরসভার ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিস্ট্রার হিসেবে ৩ জন মহিলার নাম প্রস্তাব করেন উপদেষ্টা কমিটি। ৩ সদস্যর এই প্যানেল আইন মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়।

২০১৪ সালের ১৬ জুন আইন মন্ত্রণালয় বাংলাদেশের বাস্তব অবস্থার প্রেক্ষিতে নারীদের দিয়ে নিকাহ রেজিস্ট্রারের দায়িত্ব পালন করা সম্ভব নয় মর্মে চিঠি দিয়ে ৩ সদস্যর প্যানেল বাতিল করেন। পরে আইন মন্ত্রণালয়ের এই সিন্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন নিকাহ রেজিস্ট্রারের প্যানেলে এক নম্বর ক্রমিকে থাকা আয়েশা সিদ্দিকা।

রিটের শুনানি নিয়ে আদালত আইন মন্ত্রণালয়ের চিঠি কেন বাতিল করা হবে না’ এই মর্মে রুল জারি করেন।

বুধবার রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট রিট আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন। একইসঙ্গে বাংলাদেশের সামাজিক ও বাস্তব অবস্থার প্রেক্ষিতে নারীদের নিকাহ রেজিস্ট্রারের দায়িত্ব পালন সম্ভব নয় মর্মে অভিমত দিয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.