Ultimate magazine theme for WordPress.

কুমিল্লায় নারী বিচারকের খাস কামরায় ঢুকে আসামিকে হত্যা করলো আসামি

কুমিল্লায় আদালতে বিচারকাজ চলাকালে এক আসামির ছুরিকাঘাতে একই মামলার অপর এক আসামি নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম ফারুক। তিনি জেলার লাকসাম পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের অহিদ উল্লাহর পুত্র। আর ছুরিকাঘাতকারী হাসান একই এলাকার সহিদ উল্লাহর পুত্র।

সোমবার (১৫ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে কুমিল্লার তৃতীয় জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ২০০৭ সালে মনোহরগঞ্জ থানার একটি হত্যা মামলায় হাজিরা দিতে সোমবার সকালে আদালতে আসে আসামি হাসান ও ফারুক। কুমিল্লার তৃতীয় জেলা জজ আদালতের বিচারক ফাতেমা ফেরদৌসের আদালতে বিচারকাজ শুরু হওয়ার আগ মুহূর্তে হাসান ছুরিকাঘাত করার জন্য ফারুককে তাড়া করেন। এসময় ফারুক দৌড়ে দিয়ে বিচারকের খাস কামরায় প্রবেশ করলে সেখানেই তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেন হাসান। 

বিষয়টি টের পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে আসামি হাসানকে আটক করে আদালতে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা। 

এদিকে নিহত ফারুকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

ঘটনার খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম কুমিল্লা জেলা জজ আদালত ও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন।

এ ঘটনায় আদালত পাড়ায় সবার মাঝে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। 

Leave A Reply

Your email address will not be published.