Ultimate magazine theme for WordPress.

অভিযোগ দিয়ে ৫ হাজার টাকা পেলেন সাংবাদিক

গত বৃহস্পতিবার মানিকগঞ্জ শহরের একটি লাইব্রেরি থেকে দুটি বই কিনেন মুঞ্জুর রহমান। তিনি দেখতে পান বই দুটিতে কয়েকগুণ বেশি মূল্যের আলাদা স্টিাকার বসানো হয়েছে। এ নিয়ে কাজল ব্রাদার্স লি. নামের ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেন পেশায় সাংবাদিক মুঞ্জুর রহমান।

তিনি জানান, ১১০ টাকা মূল্যের ওপর নতুন ট্যাগ লাগিয়ে অনুপম ভাষাজ্ঞান বাংলা ব্যাকরণ বিক্রি করা হচ্ছিল ২৫৯ টাকায় এবং ১৬০ টাকার অনুপম গ্রামার টুডে বই বিক্রি করা হচ্ছিল ৩৪৩। অভিযোগ পেয়ে দুপক্ষকে ডাকে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে দুপক্ষের মধ্যে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

শুনানিতে প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা দুঃখ প্রকাশ করেন। ট্যাগ লাগানো বর্ধিত মূল্যর সকল বই বাজার থেকে প্রত্যাহারসহ ভবিষ্যতে এই ধরনের অনিয়ম না করার বিষয়ে কঠোরভাবে সতর্ক করা হবে বলে জানান বই প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি দল। অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ভোক্তা অধিকার আইন, ২০০৯ অনুযায়ী কাজল ব্রাদাসকে ২০,০০০ টাকা জরিমানা করেন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল।

শুনানি কার্যক্রম ঢাকা থেকে তদারকি করেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (উপসচিব), ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয় মনজুর মোহাম্মদ শাহারিয়ার। পরে জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস জরিমানার ২৫% হিসেবে ৫০০০ টাকা অভিযোগকারীকে দেন।

মানিকগঞ্জ জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল বলেন, নির্দিষ্ট মূল্যের উপরে দ্বিতীয়বার মূল্যে লেখার কোনো সুযোগ নেই। এ রকম কাজ আইনের পরিপন্থী। অনুপম গাইড বই দুটিতে নির্দিষ্ট মূল্যের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি মূল্যে দিয়ে স্টিকার সাটানোর কারণে সাধারণ ভোক্তারা প্রতারিত হচ্ছিল। তিনি বলেন, প্রতিশ্রূত পণ্য/সেবা যথাযথ সরবোরাহ না করার কারণে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৫ ধারায় অনুপম প্রকাশক কোম্পানিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.