জনগণের ইচ্ছা থাকলে নির্বাচনে লড়বেন লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী

জনগণ চাইলে’ নির্বাচনে লড়বেন লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী

লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী আব্দুল হামিদ মুহাম্মদ দিবেইবাহ বলেছেন, “যদি লিবিয়ার জনগণ চায় তবে আমি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়ব”

 

লিবিয়ার সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল-ইসলাম ডিসেম্বরে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন জমা দেওয়ার একদিন পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। খবর ডেইলি সাবাহর।

 

সোমবার ত্রিপলিতে জাতীয় যুব কাউন্সিল আয়োজিত সভায় দিবেইবাহ শিক্ষার্থীদের জিজ্ঞাসা করে বলেন, এটি তোমাদের ওপর নির্ভর করছে। আমি নির্বাচনে অংশ নিই— তোমরা কি চাও নাকি চাও না?

এর পর তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে আমার অবস্থান আমি ‘যথাযথ সময়ে’ ঘোষণা করব।

লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা একটি স্বচ্ছ পার্লামেন্ট চাই, যে পার্লামেন্ট লিবিয়ার নাগরিকদের সেবা করবে এবং নির্বাচনের জন্য এমন আইন চাই, যাতে দেশের নাগরিকরা একমত হবে।

দিবেইবাহ এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে তার প্রার্থিতা ঘোষণা করেননি।

লিবিয়ার বর্তমান নির্বাচনি আইন অনুসারে, প্রার্থিতা ঘোষণার জন্য নির্বাচনের কমপক্ষে তিন মাস আগে থেকে তাকে সরকারি সব ধরনের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করতে হবে।

আগামী ২৪ ডিসেম্বর লিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

২০১১ সালে গাদ্দাফি সরকারের পতনের পর এই প্রথম লিবিয়ায় সরাসরি প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.