Ultimate magazine theme for WordPress.

রানের খোঁজে ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ

ডানেডিন থেকে ঘণ্টা চারেকের বাস ভ্রমণে ক্রাইস্টচার্চ। বাংলাদেশ দল রোববার পৌঁছে গেছে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডের শহরে। নিউ জিল্যান্ডের আর সব জায়গার মতো এই পথেও চোখে পড়ে সবুজ বনানী আর সুদৃশ্য সব টিলা। তবে সেই নৈসর্গিক সৌন্দর্যে ডুব দেওয়ার মানসিক অবস্থা সম্ভবত এখন বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের নেই। ব্যাটিং বিপর্যয়ের প্রথম ওয়ানডের পর দলের ভাবনা জুড়ে কেবল রান আর রান!

প্রথম ওয়ানডের পর থেকে ক্রিকেটারদের কথায় এটিই ফুটে উঠছে বারবার, প্রয়োজন আরও রান। ডানেডিনে ব্যাটিং ব্যর্থতায়ই হেরে গেছে দল। ১৩১ রানে গুটিয়ে গেলে ম্যাচ কার্যত ওখানেই শেষ হয়ে যায়। বাংলাদেশ দলের ভেতরে তাই এখন বড় রানের তাগিদ।

ডানেডিনের মতো এতটা ছোট মাঠ অবশ্য নয় ক্রাইস্টচার্চে। হ্যাগলি ওভালের সীমানা বেশ বড়। তবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে উইকেট এখানেও থাকে বেশ ব্যাটিং সহায়ক।

জয় তো বটেই, লড়াই করতে হলেও এসব উইকেটে প্রয়োজন মোটামুটি বড় রান। প্রথম ওয়ানডের পর অধিনায়ক তামিম ইকবাল এই কথা বলেছেন বারবার। দল ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছার পর প্রথম ম্যাচে অভিষিক্ত অলরাউন্ডার মেহেদি হাসানের কণ্ঠেও ফুটে উঠল একই সুর।

“এখানে খেলতে গেলে অবশ্যই রান প্রয়োজন। যদি ২৮০ বা ২৬০-২৭০ করা যায়, তাহলে ওদের বিপক্ষে তা ডিফেন্ড করার মতো। ব্যাটসম্যান আমরা যারা আছি, সবারই দায়িত্ব আছে একটি ভালো স্কোর দাঁড় করানোর জন্য।”

প্রথম ম্যাচের পর তামিম নিজেদের ভুল স্বীকার নিয়ে বলেছিলেন, ১৩০ রানে গুটিয়ে যাওয়ার মতো দল তারা নন। মেহেদি এখানেও একমত অধিনায়কের সঙ্গে।

“আমাদের দল আসলে এরকম নয়। কালকে একটা বাজে দিন ছিল, কেউই ভালো করতে পারিনি। সেটা ভুলে যাচ্ছি, পরের ম্যাচে মনোযোগ দিচ্ছি। আগের থেকে এবার ভালো হবে আশা করি। আমাদের টিম কম্বিনেশন ভালো আছে। দল হিসেবে খেলতে পারলে ভালো ফল হবে।”

এই মাঠের সবশেষ ওয়ানডেতেও মুখোমুখি হয়েছিল নিউ জিল্যান্ড ও বাংলাদেশ। সেই ম্যাচ থেকে স্মৃতির কোনো প্রেরণা বাংলাদেশের নেই। ২২৬ রানে অল আউট হয়ে বাংলাদেশ ম্যাচ হেরেছিল ৮ উইকেটে। বিধ্বংসী সেঞ্চুরি করেছিলেন মার্টিন গাপটিল।

দ্বিতীয় ম্যাচটি মঙ্গলবার শুরু হবে ক্রাইস্টচার্চ সময় দুপুর ২টায়, বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায়। হ্যাগলি ওভালে এটিই প্রথম হবে দিন-রাতের ওয়ানডে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.