Ultimate magazine theme for WordPress.

এশিয়া কাপ নিয়ে পাকিস্তানকে হুমকি দিল ভারত!

এ বছরের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানের মাটিতে এশিয়া কাপ হওয়ার কথা। কিন্তু সমস্যা বেঁধেছে ভারতকে নিয়ে। দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক বৈরিতা চরমে। পাকিস্তানের মাটিতে খেলা হলে সেখানে স্বভাবতই খেলতে যাবে না ভারত।

ভারতকে ছাড়া কি এশিয়া কাপ আয়োজন সম্ভব? আর সেটা সম্ভব হলেও টুর্নামেন্টের আকর্ষণ বলতে তো কিছুই থাকবে না। একমাত্র উপায়, নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা। কিন্তু পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) জানিয়েছে, সেটা সম্ভব নয়।

যেহেতু এসিসি পাকিস্তানকেই এশিয়া কাপের ভেন্যু হিসেবে বেছে নিয়েছে, সেহেতু ভারতকেও পাকিস্তানে গিয়ে খেলতে হবে। সেটা না হলে আগামী বছর ভারতের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যাবে না পাকিস্তানও, এমন হুমকি দিয়েছিলেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান।

পরে অবশ্য সে অবস্থান থেকে সরে আসে পিসিবি। ওয়াসিম খান জানান, ভারতে ২০২১ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যাবে না, এমন কথা বলেনি পাকিস্তান।

তবে এশিয়া কাপ পাকিস্তান থেকে সরিয়ে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে নেওয়ার সিদ্ধান্তও হয়নি। এমন সময়ে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) পক্ষ থেকে দেয়া হলো প্রচ্ছন্ন এক হুমকি। ভারত বলছে, পাকিস্তানে যাওয়া কোনোমতেই সম্ভব নয়। যদি এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) তেমন কিছুই (পাকিস্তানেই পুরো টুর্নামেন্ট আয়োজন) করতে চায়, তবে ভারতও বিকল্প (অংশ না নেওয়ার বিষয়ে) ভাববে।

বিসিসিআইয়ের একজন শীর্ষ কর্তা জানিয়েছেন, পাকিস্তান এশিয়া কাপের আয়োজক থাকবে এ ব্যাপারে তাদের কোনো আপত্তি নেই। তবে ভারত অবশ্যই পাকিস্তানে খেলতে যাবে না।

ওই কর্মকর্তার ভাষায়, ‘পিসিবির টুর্নামেন্ট আয়োজন নিয়ে প্রশ্ন নেই। প্রশ্ন হলো, ভেন্যু নিয়ে। অবস্থা এখন যেমন, তাতে পরিষ্কার যে, আমাদের নিরপেক্ষ ভেন্যু প্রয়োজন। এশিয়া কাপের মতো বহুজাতিক টুর্নামেন্টের জন্যও ভারতীয় দলের পাকিস্তানে যাওয়া সম্ভব নয়। যদি এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) ভারতকে ছাড়াই এশিয়া কাপ আয়োজন করতে চায়, তবে ভিন্ন কথা। তবে ভারত যদি খেলতে যায়, তবে ভেন্যু পাকিস্তান হতে পারবে না।’

ওই কর্তা যোগ করেন, ‘নিরপেক্ষ ভেন্যু সবসময়ই একটা ভালো অপশন। ২০১৮ সালে বিসিসিআই এমনটাই করেছিল।’

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে এশিয়া কাপের আয়োজক ছিল ভারত। সেবার নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে বেছে নিয়েছিল তারা। এবার পাকিস্তানের বদলে নাম উঠছে বাংলাদেশের। যদিও পাকিস্তানের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বাংলাদেশে এশিয়া কাপ আয়োজনের খবরটি সত্য নয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.