Ultimate magazine theme for WordPress.

আমার স্বামী গর্বিত পাকিস্তানি : আমিরের স্ত্রী

মাত্র ২৭ বছর বয়সে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করে তুমুল সমালোচনার শিকার হয়েছেন পাকিস্তানের তারকা পেসার মোহাম্মদ আমির। তবে টেস্ট থেকে অবসর নিলেও ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি খেলার কথা জানিয়েছেন আমির।

কিন্তু পরে আরও একটি খবরে আমিরের দেশপ্রেম নিয়েই প্রশ্ন তুলতে থাকেন সমালোচকরা। সেটি হলো, বাঁহাতি এ পেসার পাকিস্তান ছেড়ে পাড়ি জমাবেন ইংল্যান্ডে এবং সে দেশের জাতীয় দলে খেলার কথা ভাবছেন তিনি। এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর স্বাভাবিকভাবেই সমালোচনার মাত্রা বেড়ে যায় বহুগুণে।

যা আর সহ্য করতে পারছিলেন না আমিরের সহধর্মিনী নার্জিস আমির। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে কথা বলেছেন নিজের স্বামীর পক্ষে। পরিষ্কার করেছেন আমির ও তার পরিবারের অবস্থান।

বিস্তারিত এক বার্তায় নার্জিস লিখেছেন, ‘যদিও আমাদের কাউকে কিছু বলার দরকার নেই। তবু যারা আমার স্বামীকে সমর্থন করে, তার জন্য দোয়া করে তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, আমিরের ইংল্যান্ড বা অন্য কোনো দেশে খেলার কোনো প্রয়োজন নেই। সে একজন গর্বিত পাকিস্তানি এবং নিজ দেশের হয়ে খেলতে ভালোবাসে।’

নার্জিস আরও জানান, শুধু আমিরই নয়, সময় হলে তাদের মেয়ে মিনসা আমিরও পাকিস্তানের হয়েই খেলবে। যদি সে চায়। আমিরের স্ত্রী লিখেন, ‘শুধু আমার স্বামীই নয়, তার কন্যা মিনসাও যদি কখনো ক্রিকেট খেলতে চায়, তাহলে অবশ্যই বাবার মতো পাকিস্তানের হয়েই খেলবে।’

এসময় টেস্ট থেকে অবসর নেয়ার কারণটাও পরিষ্কার করার চেষ্টা করেন আমিরের স্ত্রী। তিনি লিখেন, ‘আমির শুধু টেস্ট ক্রিকেট থেকেই অবসর নিয়েছে, সবধরনের ক্রিকেট থেকে নয়। সে এমনটা করেছে যাতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে আরও মনোযোগ দিতে পারে এবং দেশকে আরও গর্বিত করতে পারে। আমি সকল নেতিবাচক মানুষের হেদায়েত কামনা করছি যাতে আল্লাহ আপনাদের মাঝে ইতিবাচকতা দিয়ে দেন।’

নিজের স্ত্রীর এমন বার্তায় খুশি হয়েছেন আমির নিজেও। নার্জিসের বার্তার নিচে মন্তব্যের ঘরে আমির লিখেছেন, ‘ভালো লিখেছো, বেগম।’

@iamamirofficial pic.twitter.com/BM0BXKSZBd— Narjis amir (@narjiskhan25) July 30, 2019

Leave A Reply

Your email address will not be published.