খাবার খাইয়ে তাবলিগের ১৫ মুসল্লির সর্বস্ব লুট

পটুয়াখালীর কুয়াকাটা উপজেলার একটি মসজিদে তাবলিগ জামাতের ১৫ মুসল্লিকে খাবারের সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে অচেতন করে সর্বস্ব লুটের ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্যে গুরুতর অসুস্থ আটজনকে রোববার সকালে কুয়াকাটা ২০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শনিবার রাতে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

 

তাবলিগ জামাতের সদস্য রোমান মিয়া জানান, শনিবার রাতে খাবার খেয়ে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। গভীর রাতে তিনি চেতনা ফিরলে তার টাকাপয়সা লুট হওয়ার বিষয়টি দেখতে পান। সাথীদের ঘুম থেকে জাগানোর শতচেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে ফজরের নামাজে স্থানীয় মুসল্লিরা এসে বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশে খবর দেয়।

 

এর পর মহিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অসুস্থদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪০নং ওয়ার্ডের ভাটারা থেকে আসা অসুস্থ মুসল্লিরা হলেন— চান মিয়া, আলাউদ্দিন, শেখ ফরিদ, শরীফুল, আজিজুল হক, উজ্জ্বল, রফিকুল ও শুরুজ্জামান।

 

কুয়াকাটা ২০ শয্যা হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. মাহামুদুল হাসান বলেন, তাদের খাবারের সঙ্গে চেতনানাশক খাওয়ানো হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। মহিপুর থানার ওসি খায়ের কাওছার বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এডিটঃ রেজুয়ানা রাহমান মিতু

 

চ্যালেঞ্জ

 

 

চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক কাল

ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল সৌদি সরকার

Leave A Reply

Your email address will not be published.