বাজারে আর খোলা আটা বিক্রি হবে না: খাদ্যমন্ত্রী

বাজারে আর খোলা আটা বিক্রি হবে না: খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, এখন থেকে বাজারে আর খোলা আটা আর বিক্রি হবে না। এখন থেকে ওএমএসের মাধ্যমে প্যাকেটজাত আটা বিক্রি করা হবে।

খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, সারা দেশে খাদ্যগুদামগুলো ডিজিটালাইজড করা হচ্ছে। এর ফলে অ্যাপের মাধ্যমে খুব সহজেই কোথায় কোন গুদামে পণ্য ঢুকছে,বের হচ্ছে তা জানা সম্ভব হবে।

 

রোববার নারায়ণগঞ্জের বন্দরের সেন্ট্রাল স্টোরেজ ডিপো ক্যাম্পাসে রাইস সাইলো এবং প্রিমিক্স কার্নেল ফ্যাক্টরি নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে বাংলাদেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশ। বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল বাংলাদেশ ৪১ সালে নয় ২০৩১ সালেই একটি সুখী সমৃদ্ধশালী উন্নত দেশে পরিণত হবে।

 

তাই ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে খাদ্য মজুত বাড়াতে এবং কৃষকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে কাজ করছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার।

 

তিনি বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা ইতোমধ্যে নিশ্চিত হয়েছে, এখন পুষ্টিকর খাদ্য ভোক্তার কাছে পৌঁছে দেওয়া সরকারের অন্যতম লক্ষ্য। নারায়ণগঞ্জ রাইস সাইলো এবং কার্নেল ফ্যাক্টরি এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

 

নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান এবং খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শেখ মুজিবর রহমান।

 

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী  বলেন, সরকার কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনে বলে কৃষক ন্যায্যমূল্য পায়। দেশে যত বেশি সাইলো নির্মাণ হবে কৃষক তত বেশি লাভবান হবেন। এ সময় তিনি বলেন, কৃষকবান্ধব সরকার কৃষকের পাশেই থাকবে।

 

পরে খাদ্যমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ স্টিল রাইস সাইলো নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.