কমদামে ভালো মোবাইল

কমদামে ভালো মোবাইল

প্রযুক্তির উন্নতির সাথে তাল মিলিয়ে হাতের নাগালে চলে আসছে সকল ইলেকট্রনিক্স পণ্য। আর তারই ধারাবাহিকতায় স্বল্প মূল্যেই পাওয়া যাচ্ছে অসাধারণ সব ব্যয় সাশ্রয়ী ও ফিচার সমৃদ্ধ দারুণ সব স্মার্টফোন

 

এছাড়া নতুনত্ব আনয়নের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতাও বেড়েছে স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে। যার ফলস্বরূপ অল্পদামেই পাওয়া যাচ্ছে ভালো স্মার্টফোন, যেগুলো থেকে বরাবরের মতোই উপকৃত ক্রেতা সাধারণ।

দেশের বাজারে অফিসিয়ালি বেশ স্বল্পমূল্যে ভালো ফোন পাওয়া যাচ্ছে। ভ্যালু ফর মানি ফোন এর ক্ষেত্রে কম দামে অসাধারণ স্পেসিফিকেশন এর দেখা মিলছে নতুন এসব ডিভাইসগুলোতে। চলুন তাহলে জেনে নেই সেরা কিছু কমদামী ভালো মোবাইল সম্পর্কে।

 

কমদামে ভালো মোবাইল


১) Samsung Galaxy M02:

যদি আপনার বাজেট ১০ হাজার টাকার আশেপাশে হয় আর স্যামসাং এর ফোনগুলো আপনার পছন্দের হয়, তাহলে স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২ ফোনটি কিনতে পারেন। এই ফোনের ২জিবি র্যাম ও ৩জিবি র্যাম সংস্করণ থাকলেও সম্ভব হলে ২জিবি র্যাম ভার্সনটি এড়িয়ে চলুন। বর্তমানে বেশিরভাগ অ্যাপ ভালোভাবে ব্যবহারের জন্য মোবাইলে কম করে হলেও ৩জিবি র্যাম থাকা দরকার।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২ ফোনটি স্যামসাং এর প্রোডাক্ট হওয়ায় এর সফটওয়্যার অপটিমাইজেশন বেশ ভালো। যার ফলে কাগজে কলমে আহামরি স্পেসিফিকেশন না থাকলেও ফোনটি বাজেট বিবেচনায় যথেষ্ট ভালোই পারফরম্যান্স প্রদানে সক্ষম। এছাড়াও ফোনটিতে থাকা ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি যেকোনো ধরনের ব্যবহারকারীর জন্য যথেষ্ট ব্যাকাপ দিতে সক্ষম।

একনজরে স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২ এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ
• ডিসপ্লেঃ ৬.৫ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক এমটি৬৭৩৯
• র্যামঃ ২জিবি/৩জিবি
• স্টোরেজঃ ৩২জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প
• দামঃ ৮৫৯৯টাকা / ৯৯৯৯টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

২) Walton Primo RX7 Mini:

দেশীয় মোবাইল বাজারে ১০ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে কোনো ফোন আজ পর্যন্ত হয়তো এতোটা জনপ্রিয় হতে পারেনি, যতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছিল দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন এর ওয়ালটন প্রিমো আরএক্স৭ ফোনটি। ফোনটি সাশ্রয়ী দামে অসাধারণ স্পেসিফিকেশন অফার করার মাধ্যমে রিলিজের ২ বছর পরও অসাধারণ “ভ্যালু ফর মানি” অফার করছে। এই ফোনটির মূল আকর্ষণ হচ্ছে এর প্রসেসর, মিডিয়াটেক হেলিও পি৬০। এতো কম দামের ফোনে এই ধরনের শক্তিশালী প্রসেসরের দেখা পাওয়া প্রায় অসম্ভব ব্যাপার। বাজেট গেমাররা চাইলে এই ফোনটি কিনতে পারেন স্বল্পমূল্যের ফোনে স্বাচ্ছন্দে গেমিং করতে চাইলে।

একনজরে ওয়ালটন প্রিমো আরএক্স৭ মিনি এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.১ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও পি ৬০
• র্যামঃ ৩ জিবি
• স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৩০০০ মিলিএম্প
• দামঃ ৯,৪৯৯ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৩) Infinix Hot 9 Play:

ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে ফোনটি মূলত সাধারণ ব্যবহারীদের কথা মাথায় রেখেই তৈরী করা হয়েছে। এই ফোনটির বিশাল ব্যাটারি যেকোনো ধরনের ব্যবহারকারীর নিসন্দেহে পছন্দ হবে। বিশেষ করে একটু বড় স্ক্রিনে যারা মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট দেখতে পছন্দ করেন, তাদের জন্য এই ফোনটিই সেরা। এছাড়াও ফোনটির ২জিবি র্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টটি মাত্র ৭,৯৯০টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। বাজেট বাড়ানো সম্ভব হলে ফোনটির ৪জিবি র্যাম ও ৬৪জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টটি ক্রয় করাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

একনজরে ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৮২ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ ২৫
• র্যামঃ ২ জিবি / ৪ জিবি
• স্টোরেজঃ ৩২ জিবি / ৬৪ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিএম্প
• দামঃ ৭,৯৯০ টাকা / ৯,৯৯০ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৪) Symphony Z40:

হাতের ফোনটি সুন্দর দেখতে হওয়া চাই, সাথে পারফরম্যান্স ও হওয়া চাই ব্যবহারযোগ্য – ঠিক এমনটাই যদি হয় আপনার পছন্দ, তাহলে সিম্ফনি জেড ৪০ ফোনটি আপনাকে হতাশ করবেনা। এই ফোনটি নিঃসন্দেহে ১০ হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর দেখতে ফোনগুলোর কাতারে একটি। তবে সৌন্দর্যের মধ্যেই শেষ নয় সিম্ফনি জেড৪০ এর প্রশংসা। ফোনটিতে রয়েছে বিশাল ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি। এছাড়াও স্টক অ্যান্ড্রয়েডে চালিত বলে ৩জিবি র্যামের ফোন হলেও সাধারণ ব্যবহারে সিম্ফনি জেড ৪০ নিয়ে কোনো সমস্যা হওয়ার সুযোগ নেই।

একনজরে সিম্ফনি জেড৪০ এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি ৩৫
• র্যামঃ ৩ জিবি
• স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প
• দামঃ ৯,৯৯০ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৫) Tecno Spark 6:
১২ হাজার টাকার ডিভাইসে ১২৮ জিবি স্টোরেজ আবার সাথে বেশ ভালো একটি প্রসেসর পেলে কেমন হয়? আপনাদের বলছি টেকনো স্পার্ক ৬ ফোনটি সম্পর্কে। সবচেয়ে কম দামে ১২৮ জিবি স্টোরেজ প্রদান করার মাধ্যমে ফোনটি আমাদের কমদামী ভালো ফোন্গুলোর তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। তবে স্টোরেজ বেশি বলে অন্যান্য ফিচারগুলোও কমতি রাখেনি টেকনো। ফোনটিতে ৫০০০ মিলিএম্পের বিশাল ব্যাটারির পাশাপাশি ব্যবহারযোগ্য ক্যামেরা সেটাপও চোখে পড়ার মতো। তাছাড়া ফোনটির প্রসেসর বর্তমানের যেকোনো শক্তিশালী অ্যাপ বা গেম চালাতেও যথেষ্ট শক্তিশালী।

একনজরে টেকনো স্পার্ক ৬ এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি ৭০
• র্যামঃ ৪ জিবি
• স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প
• দামঃ ১১,৯৯০ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৬) Samsung Galaxy M02S:

স্যামসাং ফ্যানদের জন্য ১৩ হাজার টাকার প্রাইসের মধ্যেই রয়েছে সারপ্রাইজ,আর তা হলো স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ডিভাইসটি। স্যামসাং এর অসাধারণ সফটওয়্যার অপটিমাইজেশনকে সাথে নিয়ে ফোনটির শক্তিশালী প্রসেসরের পারফরমেন্স নিয়ে কোনো ধরনের ব্যবহারকারীর সেরকম কোনো সমস্যা হওয়ার কথা নয়। তাছাড়াও স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ফোনটিতে রয়েছে ভালো ক্যামেরা সেটাপ। ৪ জিবি র্যাম এর সুবাদে ফোনটিতে মাল্টিটাস্কিংয়েও কোনো সমস্যা পোহাতে হবেনা। অল্প দামে ভালো ফোনের তালিকায় স্যামসাং এর এই ফোনটি অসাধারণ এক সংযোজন।

একনজরে স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৫০
• র্যামঃ ৪ জিবি
• স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প
• দামঃ ১২,৪৯৯ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৭) Walton Primo RX Mini:
আরএক্স৭ মিনি ফোনটি নিয়ে যে পরিমাণ হাইপ উঠেছিল তাতে প্রশংশায় পঞ্চমুখ বেশ ভালোই হয়েছিল ওয়ালটন। এই ফোনটি গ্রাহকের চাহিদা পূরণে সক্ষম হয় ও দেশীয় ইলেক্ট্রনিক্স ব্র্যান্ড হিসাবে ওয়ালটন আবারও নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। মাত্র ১৩ হাজার টাকার ফোন হলেও কোনো ফিচারের ব্যাপারে কার্পণ্য করেনি ওয়ালটন। শক্তিশালী প্রসেসরযুক্ত এই ফোনটিতে ১২ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরার পাশাপাশি আছে আরেকটি ৮ মেগাপিক্সেলের আলট্রাওয়াইড সেন্সর, যা এই দামে অনন্য। আর ফোনটির ডিজাইন খুবই আকর্ষণীয়। এছাড়া এই দামে ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে রয়েছে ফোনটিতে। এই ধরনের বাজেট বান্ধব ফোনগুলো বাজারে ভবিষ্যতে আরো আনতে পারলে দেশীয় ব্র্যান্ডগুলোর প্রতি মানুষের আস্থা ক্রমশ বাড়বে।

একনজরে ওয়ালটন প্রিমো আরএক্স৮ মিনি এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৩ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬০
• র্যামঃ ৪ জিবি
• স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১২ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৩৬০০ মিলিএম্প
• দামঃ ১২,৯৯৯ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৮) Realme Narzo 30A:
নারজো সিরিজটি মূলত কম দামে ভালো গেমিং ফোন প্রত্যাশী ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে তৈরী করেছে রিয়েলমি। আর সেই সুবাদেই ১৩ হাজার টাকার ফোন, নারজো ৩০ ফোনটি কমদামী ভালো ফোনগুলোর তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। রিয়েলমি নারজো ৩০এ ফোনটির মূল আকর্ষণ হচ্ছে ফোনটির অসাধারণ প্রসেসর, মিডিয়াটেক হেলিও জি ৮৫। যারা অল্প দামে ভালো গেমিং ফোন খুঁজছেন, তাদের জন্য এই ফোনটি সেরা পছন্দ হতে পারে। তাছাড়া যারা ভারি কাজে বা খুব বেশিক্ষণ যাবত স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকেন, তাদের জন্য এই ফোনটির শক্তিশালী প্রসেসরটি দারুণ সুবিধা প্রদান করবে। এছাড়া ফোনটির বিশাল ব্যাটারিও এর একটি বড়সড় প্লাস পয়েন্ট বলা চলে।

একনজরে রিয়েলমি নারজো ৩০এ এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি ৮৫
• র্যামঃ ৪ জিবি
• স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিএম্প
• দামঃ ১২,৯৯০ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৯) Infinix Note 8I:

৫ হাজার টাকা দামের অসাধারণ একটি ফোন, ইনফিনিক্স নোট ৮ আই। বড় প্যাকেটেই বড় ধামাকা বলা চলে। ফোনটির সুবিশাল ডিসপ্লে ও ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ছাড়াও র্যাম ও স্টোরেজ ডিপার্টমেন্টেও রয়েছে দারুণ চমক। ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ইনফিনিক্স নোট ৮ আই ফোনটিতে দেখা মিলবে ৬ জিবি র্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের। এছাড়াও ফোনটি দেখতে বেশ আকর্ষণীয়। ফিংগার প্রিন্ট সাইড মাউন্টেড হওয়ায় ফোনটির সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে বহু গুন। যেসব ক্রেতারা ১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ একটি ফোন ক্রয় করতে ইচ্ছুক , তাদের জন্য ইনফিনিক্স নোট ৮ আই পারফেক্ট পছন্দ।

একনজরে ইনফিনিক্স নোট ৮আই এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৭৮ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি ৮০
• র্যামঃ ৬ জিবি
• স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ৪৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৫২০০ মেগাপিক্সেল
• দামঃ ১৪,৯৯০ টাকা

কমদামে ভালো মোবাইল

৯) Xiaomi Redmi 9:

১৫ হাজার টাকায় শাওমির রেডমি ৯ ফোনটি “ভ্যালু ফর মানি” ট্যাগের এক অনন্য দৃষ্টান্ত। বর্তমান সময়ে সর্বাধিক প্রচলিত বা স্ট্যান্ডার্ড সব ফিচার এই স্মার্টফোনটিতে বিদ্যমান। রেডমি ৯ ফোনটিতে শক্তিশালী প্রসেসরের পাশাপাশি রিয়েছে অসাধারণ ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। তাছাড়াও রেডমি ৯ ফোনটিতে ১৩ মেগাপিক্সেল মূল ক্যামেরার পাশাপাশি রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের আলট্রাওয়াইড ও ব্যবহারযোগ্য ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা। আবার ফোনটিতে টাইপ সি সম্বলিত ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এর পাশাপাশি সুদীর্ঘ ৫০২০ মিলিএম্পের ব্যাটারিতো আছেই। শাওমির পক্ষ্য থেকে দেশের বাজারে অফিসিয়ালি পাওয়া যাচ্ছে সেসকল ফোনগুলোর মধ্যে রেডমি ৯ ফোনটি সেরার তালিকাতে থাকবেই থাকবে তা নিশ্চিত।

একনজরে শাওমি রেডমি ৯ এর স্পেসিফিকেশনসমূহঃ

• ডিসপ্লেঃ ৬.৫৩ ইঞ্চি
• প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি ৮০
• র্যামঃ ৪ জিবি
• স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
• মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা
• ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
• ব্যাটারিঃ ৫০২০ মিলিএম্প
• দামঃ ১৪,৯৯৯ টাকা

 

 

Edited By: Kanij Fatema

 

 

আন্তরিকতার সঙ্গে দেশসেবা করতে হবে

সৌদিতে জুমার খুতবায় তাবলিগ জামাতের…

মুরাদ হাসান এখন কোথায়?

চলতি মাসেই বুস্টার ডোজ

মোবাইল

Leave A Reply

Your email address will not be published.