হারিয়ে গেছে ৪ পা-ওয়ালা মুরগির বাচ্চা

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে হারিয়ে গেছে ৪ পা-ওয়ালা মুরগির বাচ্চা। বুধবার সকাল থেকে সেটিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। হারিয়েছে না কেউ কোনো উদ্দেশ্যে নিয়ে গেছে তা নিয়ে চলছে আলোচনা।

উপজেলার কচাকাটা ইউনিয়নের ইন্দ্রগড় ব্যাপারীটারী গ্রামের আমিনুর ইসলামের স্ত্রী নুরী বেগম জানান, দুই সপ্তাহ আগে তার গৃহপালিত মুরগি ডিমে তা দিয়ে দুটি বাচ্চার জন্ম দেয়। এর একটি স্বাভাবিক হলেও অন্যটি ছিল ব্যতিক্রম। প্রকৃতিগতভাবে মুরগির ২টি পা থাকলেও অন্য মুরগির বাচ্চাটি ৪টি পা নিয়ে জন্মায়। এর দুটি পা স্বাভাবিক ও শরীরের যথাস্থানে। অন্য দুইটি তুলনামূলক ছোট এবং প্রায়ই লেজের সঙ্গে লেগে থাকা। হাঁটাচলায় কোনো সমস্যা না হওয়ায় তার মায়ের সঙ্গে সে স্বাভাবিক চলাফেরা করত।

ফলে প্রথমাবস্থায় এর ৪টি পা দৃশ্যমান না হলেও মুরগির বাচ্চার বয়স বাড়ার সঙ্গে ধীরে ধীরে তা স্পষ্ট হয়। বিষয়টি প্রকাশ পেলে অনেকেই তা দেখতে আসেন। মঙ্গলবার সরেজমিন গিয়েও দেখা গেছে তার স্বাভাবিক চলাফেরা। বুধবার সকালেও মুরগির বাচ্চাটি তার মায়ের সঙ্গে চলাফেরা করেছে বাড়ির ওঠান ও আশপাশে। তার কিছুক্ষণ পর থেকেই আর তাকে দেখা যাচ্ছে না।

তবে কি শিয়াল, বেজিতে খেয়েছে? নাকি চিলে নিয়ে গেছে? নাকি কেউ কোনো উদ্দেশ্যে গোপনে তাকে সরিয়ে ফেলেছে? এ নিয়ে চলছে আলোচনা। উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. রফিকুল ইসলাম জানান, মুরগির বাচ্চাটির ক্ষেত্রে এটি জন্মগত ত্রুটি। কয়েক হাজার অথবা লক্ষের মধ্যে কখনো কখনো এটি পাওয়া যায়।

 

 

এডিটঃ রেজুয়ানা রাহমান মিতু

 

ডা. মুরাদ ও মাহিকে ডিবিতে ডাকা হবে

 

 

মুরাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হবে

সপ্তাহে সাড়ে ৪ দিন অফিস

Leave A Reply

Your email address will not be published.