ইসরায়েলে চব্বিশ ঘণ্টায় শনাক্তের ৪২ শতাংশ টিকা নেওয়া

ইসরায়েলে করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট নতুন করে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। সোমবার গত ২৪ ঘণ্টায় ৫০১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আগের দিনের তুলনায় সংক্রমণ বৃদ্ধির হার ৫০ শতাংশ। এদের মধ্যে ৪২ শতাংশ আক্রান্ত মানুষ করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছেন। মঙ্গলবার দেশটির সংবাদমাধ্যম হারেৎজ এখবর জানিয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, সর্বশেষ ৩০ মার্চ ইসরায়েলে শনাক্তের সংখ্যা পাঁচশ’ ছাড়িয়েছিল। করোনার অতি সংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের দ্রুত ছড়াতে পারার উদ্বেগের মধ্যেই এই পরিস্থিতি দেখা দিল। ভাইরাসের জিনোম পরীক্ষার পর নিশ্চিত হওয়া নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৯০ শতাংশই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে মার্কিন কোম্পানি ফাইজারের করোনা টিকার কার্যকারিতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মন্ত্রণালয়। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার কার্যকারিতা ৬৪ শতাংশে নেমে এসেছে। যা প্রাথমিকভাবে প্রত্যাশার চেয়ে কম। তবে রোগের ভয়াবহতা ও হাসপাতালে ভর্তি ঠেকানোর ক্ষেত্রে টিকাটি ৯৩ শতাংশ কার্যকর।

মার্চে প্রকাশিত ইসরায়েলের তথ্য অনুসারে, ফাইজারের টিকা নেওয়ার দুই সপ্তাহের মধ্যে উপসর্গযুক্ত করোনা ঠেকাতে ৯৯ শতাংশ এবং সংক্রমণ ঠেকাতে ৯১.২ শতাংশ কার্যকর ছিল।

তবে এখনই টিকার তৃতীয় ডোজ দেওয়ার সুপারিশ করা থেকে বিরত থেকে ইসরায়েলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তারা জানিয়েছে, আক্রান্ত কারও সংস্পর্শে আসলে টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের করোনা পরীক্ষা করতে হবে।

ইসরায়েলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৩১ জন সম্প্রতি বিদেশ থেকে ফিরেছেন। বাকিরা স্থানীয়ভাবে কমিউনিটি সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন। দেশটিতে এখন আর নাম্বার ১.৪৩। সোমবার দেশটিতে নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হারও বেড়েছে। রবিবার তা ০.৭ শতাংশ থাকলেও সোমবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ০.৯৭ শতাংশ।

Loading...