ইরানে বিপ্লবী গার্ডসের কর্নেলসহ নিহত ১৯

ইরানের সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় ইসলামি বিপ্লবী গার্ডস বাহিনীর এক কর্নেলসহ ১৯ জন নিহত হয়েছেন।

গতকাল শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে। রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি এ কথা জানিয়েছে।

গত মাসের শুরুর দিকে ইরানের নৈতিকতা পুলিশের হেফাজতে কুর্দি তরুণী মাসা আমিনির মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় দেশটিতে চলমান ব্যাপক বিক্ষোভের সঙ্গে গতকালের এই বন্দুকযুদ্ধের কোনো সম্পর্ক আছে কি না তাৎক্ষণিক তা স্পষ্ট নয়।

ইরানে বিপ্লবী গার্ডসের কর্নেলসহ নিহত ১৯

বন্দুকযুদ্ধের বিষয়ে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে আঞ্চলিক গভর্নর হোসেইন খিয়াবানি বলেন, ‘এই ঘটনায় ১৯ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ২০ জন।’

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, ‘গোলাগুলিতে ইসলামি বিপ্লবী গার্ডস বাহিনীর প্রাদেশিক গোয়েন্দা কর্মকর্তা কর্নেল আলি মোসাভিও নিহত হয়েছেন।’ নিহত বাকিদের পরিচয় সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি।

সিস্তান-বেলুচিস্তান আফগানিস্তান ও পাকিস্তান সীমান্তবর্তী ইরানের একটি দারিদ্র্যপীড়িত প্রদেশ। মাদক কারবারিদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘাতের অন্যতম অঞ্চল এটি। পাশাপাশি সংখ্যালঘু বালুচ এবং সুন্নি মুসলিমদের চরমপন্থী গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গেও তাঁদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে থাকে।

এর আগে শুক্রবার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, বন্দুকধারীরা প্রাদেশিক রাজধানী জাহেদানের একটি থানায় হামলা চালালে নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা জবাব দেয়। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়, ওই গুলিবিনিময়ের ঘটনায় কয়েকজন পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি পথচারীরাও আহত হন।

ইরানে বিপ্লবী গার্ডসের কর্নেলসহ নিহত ১৯

এদিকে, মাসা আমিনির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ইরানের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। নরওয়েভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন ইরান হিউম্যান রাইটস (আইএইচআর) বলছে, প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে চলা এ বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ৮৩ জন নিহত হয়েছেন।

‘অনুপযুক্ত পোশাক’ পরিধান ও ঠিকমতো হিজাব না পরার অভিযোগে ১৩ সেপ্টেম্বর রাজধানী তেহরানে মাসাকে গ্রেপ্তার করে ইরানের নৈতিকতা পুলিশ। তিন দিন সংজ্ঞাহীন থাকার পর হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

 

 

 

বাংলাসহ ১০ ভাষার রেডিও সম্প্রচার বন্ধ করছে বিবিসি

মিয়ানমারে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প

Leave A Reply

Your email address will not be published.