আ.লীগের মনোনয়ন না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ

স্থানীয় সরকারের পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ, মানববন্ধন ও সমাবেশ করা হয়েছে। এসব বিক্ষোভ কর্মসূচি সোমবার রাতে ও মঙ্গলবার পালন করা হয়। এ সময় মনোনয়নবঞ্চিত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দাবি করেন, অনেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত না। টাকার বিনিময়ে অনেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। মানুষের সুখে-দুঃখে কোনো খোঁজখবর রাখেন না। এলাকায় আসেন না। যাদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে, তাদের মধ্যে অনেকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। মনোনয়নবঞ্চিতরা বলেন, অবিলম্বে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তাদের নৌকার মনোয়ন বাতিল করতে হবে। এদিকে মাদারীপুরের ডাসার উপজেলায় তৃণমূলের পাঠানো ২৩ নামের কেউ দলীয় মনোনয়ন পাননি। ব্যুরো, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

 

বগুড়া : বগুড়ার সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচনে শান্তি কমিটির সভাপতির ছেলে শহীদুল বারী খান রব্বানীকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়ায় শুধু দলীয় নেতাকর্মী নন, বীর মুক্তিযোদ্ধারাও ফুঁসে উঠেছেন। তার মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে বীর মুক্তিযোদ্ধারা মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। লিখিত বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী বলেন, সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে রাজাকার মৃত সামসুল হক খানের ছেলে শহীদুল বারী খান রব্বানীকে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেওয়ায় আমরা ব্যথিত। সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে আলতাফ হোসেন বুলু, মহসীন আলী, মোজাম্মেল হক, মো. হেলাল, এএমএম মুসা, আব্দুর রশিদ, আব্দুর রাজ্জাক, আবছার আলী, আব্দুল খালেক, হাবিবুর রহমান, ইউনুছ আলী, সিরাজুল ইসলাম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

শরীয়তপুর : চার বছর ধরে ইতালিতে প্রবাসে থেকেও শরীয়তপুর জেলার সদর উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নে শাহ আলম মুন্সি তার নিজের নামে কৌশলে ভাগিয়ে নিলেয়েছেন নৌকার মনোনয়ন। এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে মাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণ। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও শাহ আলম মুন্সি নৌকার মনোনয়ন নিয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হেরে যান। এবারও ইতালি থেকে কৌশলে বাগিয়ে নিয়েছেন নৌকার মনোনয়ন। আর এতে করে ফুঁসে উঠছে পুরো মাহমুদপুরবাসী। ওই সমাবেশে বক্তারা অবিলম্বে ইতালিপ্রবাসী শাহ আলম মুন্সির মনোনয়ন বাতিলের দাবি জানান। তিনি ২০১৬ সালে নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হেরে যান।

 

 

মাদারীপুর : মাদারীপুরের ডাসার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ শাখাওয়াত হোসেনের অভিযোগ ডাসার উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে ইউনিয়ন ও উপজেলা আওয়ামী লীগ যে ২৩ প্রার্থীর নাম মনোনয়ন বোর্ডে পাঠিয়েছিল, তারা কেউ মনোনয়ন পাননি। মনোনয়ন পেয়েছেন দল থেকে বহিস্কৃত ও বিতর্কিত প্রার্থীরা। জানা যায়, ডাসার উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২৩ জনের নাম সুপারিশ করেছিল উপজেলা আওয়ামী লীগ। এই ২৩ জনের মধ্য থেকে একজনও দলীয় মনোনয়ন পাননি। ডাসার উপজেলা আওয়ামী লীগ রোববার দলীয় প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়।

 

 

কালকিনি (মাদারীপুর) : কালকিনি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে মনোনয়নবঞ্চিত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের সমর্থকরা টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। সিডিখান ইউপিতে মনোনয়নবঞ্চিত মিলন মিয়া বলেন, আমাদের ইউপিতে চান মিয়াকে নৌকা দেওয়া হয়েছে। সে একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী।

 

 

ধামরাই (ঢাকা) : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে ঢাকার ধামরাই উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের মধ্যে ১৫টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়েছে। ১১ নভেম্বর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মেয়াদ শেষ না হওয়ায় সূতিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন এ যাত্রায় হচ্ছে না। ১৫টি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক প্রত্যাশী ছিলেন ৫৭ জন। ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে অপরিবর্তিত রয়েছেন ৬ ইউপি চেয়ারম্যান। আর ৯টিতে এসেছে নতুন মুখ। নৌকার নতুন ৭টি মুখ হচ্ছে-চৌহাট ইউনিয়নে বর্তমান চেযারম্যান পারভীন হাসান প্রীতির পরিবর্তে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন সিকদার, আমতা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান চলচ্চিত্র অভিনেতা মো. আবুল হোসেনের পরিবর্তে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মো. আরিফ হোসেন, বালিয়া ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আহমদ হোসেনের পরিবর্তে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মো. মুজিবর রহমান, সূয়াপুর ইউনিয়ন বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রহমান সোহরাবের পরিবর্তে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. কফিল উদ্দিন, নান্নার ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আলতাফ হোসেনের পরিবর্তে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল বাসার বাদশা, রোয়াইল ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আবুল কালাম সামসুদ্দিন মিন্টুর পরিবর্তে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. কাজীম উদ্দিন খান, বাইশাকান্দা ইউনিয়নে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান বিএম মাসুদ রানার পরিবর্তে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান মিজান, কুশুরা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান এনায়েতুর রহমান এনার পরিবর্তে ঢাকা-২০, ধামরাই আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা বেনজীর আহমদের ভগ্নীপতি ও সাবেক সরকারি আমলা মো. নুরুজ্জামান, যাদবপুর ইউনিয়নে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী ইছাকের পরিবর্তে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্যের বেয়াই মা. আবদুল মজিদকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

 

 

নেত্রকোনা : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নাম তৃণমূলে বাছাইয়ের পর তা সঠিকভাবে কেন্দ্রে পাঠানোর দাবিতে নেত্রকোনার খালিয়াজুরিতে মানববন্ধন হয়েছে। উপজেলা পরিষদের সামনের সড়কে ‘তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের’ ব্যানারে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

 

Edited by sa srk 

Leave A Reply

Your email address will not be published.