Ultimate magazine theme for WordPress.

সেই ত্রিভুবনে ছিটকে পড়ল উড়োজাহাজ

২৬ বাংলাদেশিসহ ৫১ প্রাণ হারানো সেই নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে আবারও ছিটকে পড়েছে যাত্রীবাহী একটি বিমান। তবে এতো বড় কোনো দুর্ঘটনার শিকার হয়নি।  এ ঘটনায় দুই আরোহী আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (১২ জুলাই) স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৫ মিনিটে ইয়েতি এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজ এই দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, ইয়েতি এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজটি অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। দুর্ঘটনার পরপরই দেশটির একমাত্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

দ্য ইয়েতি এয়ারলাইনসের এনওয়াইটি- ৪২২ ফ্লাইটটি নেপালের উত্তরাঞ্চল থেকে ৬৬ যাত্রী নিয়ে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। এটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পাশের মাঠের ১৫ মিটার ভেতরে চলে যায়। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে বিমানবন্দরে উদ্ধারকারী দল উদ্ধার কাজে নেমে পড়েন। 

উল্লেখ্য, গত বছরের ১২ মার্চ বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টা ৫১ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইউএস-বাংলার বিমানটি নেপালের উদ্দেশে উড্ডয়ন করে। নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (টিআইএ) ইউএস-বাংলার একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়। এ ঘটনায় ৫১ জন নিহত হন। যার মধ্যে ২৬ বাংলাদেশি, অপর নিহতদের মধ্যে ২৩ জন নেপালি এবং মালদ্বীপ ও চীনের একজন করে নাগরিক ছিলেন। আহত ২২ জনের মধ্যে বাংলাদেশি ৯ জন। 

Leave A Reply

Your email address will not be published.