Ultimate magazine theme for WordPress.

সব কোম্পানির মোবাইলের জন্য একই চার্জার’

বর্তমানে বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানির নিজস্ব চার্জার রয়েছে। অধিকাংশ সময়ই এক মোবাইলের চার্জার দিয়ে অন্য মোবাইলে চার্জ দেওয়া সম্ভব হয় না। ফলে চার্জার নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এ সমস্যা নিরসনে সব কোম্পানির ফোন-স্মার্টফোন, ট্যাবলেট বা ই-বুকে একই মডেলের চার্জার ব্যবহারের জন্য একটি বিশেষ প্রস্তাব পাস করেছে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, গত বৃহস্পতিবার ইইউ পার্লামেন্টে পাস হওয়া ওই প্রস্তাবনায় সব কোম্পানিকে একই মডেলের চার্জার ব্যবহারের জন্য চাপ দিতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ক্রেতাদের প্রতিটি নতুন ডিভাইসের সঙ্গে যেন চার্জার কিনতে না হয়, সেটিও নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

তবে এর আগে এ ধরনের পরিকল্পনার সমালোচনা করেছিল প্রযুক্তি বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় নির্মাতা অ্যাপল। তাদের দাবি, এ ধরনের সিদ্ধান্ত সৃজনশীল চিন্তাকে বাধাগ্রস্ত করবে এবং পরিবেশদূষণ বৃদ্ধি হবে। তবে এখনও পর্যন্ত প্রস্তাবনার বিরুদ্ধে কোনও মন্তব্য করেনি তারা।
অ্যাপলের পণ্যগুলোতে ব্যবহৃত লাইটনিং ক্যাবল প্রতিদ্বন্দ্বী অন্য কোম্পানিগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। বিশ্বের অন্য কোম্পানিগুলো সাধারণত ইউএসবি ব্যবহার করে থাকে। ২০০৯ সালে সব কোম্পানির পণ্যে একই চার্জার ব্যবহারের জন্য বাধ্যতামূলক নয় এমন একটি স্মারক স্বাক্ষর করেছিল অ্যাপল। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু পণ্যে ইউএসবি-সি চার্জার ব্যবহারও করছে তারা। তবে সেটাও অন্য কোম্পানিগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।

এ ধরনের সমস্যা সমাধানে প্রায় এক দশক ধরে চেষ্টা করছে ইউরোপিয়ান কমিশন। এবার রেজ্যুলেশন পাসের মাধ্যমে সেই পথে আরও একধাপ এগিয়ে গেল তারা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.