Ultimate magazine theme for WordPress.

পর্ন দেখতে হয় তাহলে পর্নসাইটে দেখুন, ওয়েব সিরিজে নয়’

ওয়েব সিরিজ মানেই গালিগালাজ, যৌনতা ও বিকৃত ভাষার ব্যবহার। এটাই ধারণা হয়ে গিয়েছে সাধারণ মানুষের। আর ঠিক এই কারণেই জনপ্রিয় হয়েছিল অনুরাগ কাশ্যপের ‘সেক্রেড গেমস’। এবার আগামী ১৫ অগাস্ট ‘সেক্রেড গেমস’-এর দ্বিতীয় পর্ব মুক্তি পাবে আগামী ১৫ অগাস্ট। 

কিন্তু হলিউডের ক্ষেত্রে ওয়েব সিরিজে বেশি কু-কথা বা যৌন দৃশ্যের ব্যবহার থাকেই না।

ভারতের ক্ষেত্রে সেই ঘটনার পরিমাণটাই বেশি। কারণ ভারতে ওয়েব সিরিজে কোনও সেন্সরশিপ নেই। এই বিষয় নিয়েই অভিনেতা পঙ্কজ ত্রিপাঠী জানিয়েছেন, ”আমার মনে হয় আমাদের এখানে যা দেখানো হয় তার পিছনে একটা সুনির্দিষ্ট কারণ রয়েছে। যদি কাঁচি চালালে দৃশ্য ছোট হয়ে যায় বা অর্ধেক হয়ে যায় তাহলে সেটার কোনও মানে হয় না। 

বিক্রমআদিত্য মোতওয়ানে কিংবা অনুরাগ কাশ্যপ দায়িত্ব নিয়ে সিনেমা বানান। তারা শুধুমাত্র মানুষকে উত্তেজিত করার জন্য কোনও দৃশ্যের শ্যুটিং করে না। যদি মানুষের পর্ন দেখার ইচ্ছাই হয় তাহলে তার জন্য ইন্টারনেট রয়েছে, তাহলে মানুষ শুধু শুধু কেন ওয়েব সিরিজ দেখেন। 

পর্ন দেখার জন্য ওয়েব সিরিজ দেখা উচিত নয়।” তিনি আরও জানান, ”একজন দায়িত্ববান পরিচালক জানেন তার গল্পের জন্য কোনটা জরুরি। শুধুমাত্র সেন্সরশিপের জন্য কাটা ছেড়া করা উচিত নয়। তবে একটা সেন্সরশিপের প্রয়োজন যারা বয়সের ভাগ করে দেবে।”

‘সেক্রেড গেমস সিজন-২’-তে গুরুজির ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে পঙ্কজকে। সেই বিষয়ে তিনি জানিয়েছেন, ”খুবই কঠিন চরিত্র এটি। আমি এই ধরনের চরিত্র আগে করিনি কখনও। আমি নিজে জীবনে কোনও গুরুজিকে কাছ থেকে দেখিনি। তাই এটা আমার কাছে একদম নতুন জায়গা ছিল, যেখানে বেশ খোলামেলা ভাবেই অভিনয় করতে পেরেছি আমি। এটাই আমার কাছে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল।”

Leave A Reply

Your email address will not be published.