Ultimate magazine theme for WordPress.

দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে ‘পরিকল্পিত গণহত্যা’ চালিয়েছে বিজেপি: মমতা

বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) ইস্যুতে দিল্লিতে সহিংসতায় প্রাণহানির ঘটনাকে রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের ‘পরিকল্পিত গণহত্যা’ বলে দাবি করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, ‘দিল্লিতে কোনও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হয়নি। সেখানে পরিকল্পিত গণহত্যা চালিয়েছে ক্ষমতাসীনরা। পুলিশ দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে তা দেখেছে। এরপর গণহত্যাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে পরিকল্পিতভাবে দাঙ্গার চেহারা ও সাম্প্রদায়িক রঙ ছিটানো হয়েছে।’

সোমবার (২ মার্চ) নেতাজি ইন্দোর স্টেডিয়ামে ‘বাংলার গর্ব মমতা’ শিরোনামে নতুন এক কর্মসূচির ঘোষণাকালে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কর্মসূচি ঘোষণার শুরুতেই বিজেপি তথা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তীব্রভাবে আক্রমণ করে বলেন, ‘এক কথায় দিল্লিতে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চালানো হয়েছে। সেখানে রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত গণহত্যা চালানো হয়েছে। গেল কয়েকদিন দিল্লিতে যেভাবে মানুষ হত্যা হয়েছে তা সম্পূর্ণভাবে পরিকল্পিত গণহত্যা, এটি কোনও দাঙ্গা নয়। গণহত্যার পর তাতে দাঙ্গার রূপ দেয়ার চেষ্টা করা হয়।’

রাষ্ট্রীয় মদদে দিল্লিতে জ্বালাও-পোড়াও ও হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় ক্ষমতাসীনদের প্রতি ধিক্কার জানিয়ে বর্তমান স্বৈরাচারি সরকার বিদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন মমতা।

দলের নেতাকর্মীদের সতর্ক করে মমতা বলেন, ‘এই কঠিন সময়ে বিজেপি নানাভাবে প্ররোচনা দেবে। আমাদের কোনওভাবেই সংঘাতে জড়ানো যাবে না। আইন হাতে তুলে নেয়া যাবে না। বরং সংঘাত-সহিংসতার বিরোধিতা করতে হবে।’

গেল ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে দিল্লিতে সিএএ ইস্যুতে চলমান সহিংসতায় ৪২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। নিহতদের অধিকাংশই মুসলিম। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। দিল্লিজুড়ে চলমান সহিংসতার মধ্যেই ভারত সফর করে গেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Leave A Reply

Your email address will not be published.