Ultimate magazine theme for WordPress.

করোনাভাইরাসের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ থেকে বাঁচলেন চীনা নারী

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আতঙ্কে অস্থির চীনের জনগণ। এর হাত থেকে রক্ষা পেতে গোটা চীনেই বিরাজ করছে অন্যরকম এক পরিস্থিতি। এমন অবস্থার মধ্যে সেখানে নিজেকে করোনায় আক্রান্ত বলে সম্ভাব্য ধর্ষণের হাত থেকে বেঁচে গেছেন এক নারী।

শুক্রবার করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল উহানের নিকটবর্তী জিংশান শহরের কাছে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার শিকার নারী ইয়ি জানান, রাতে জানাল ভেঙে জিয়াও নামের এক যুবক তার ঘরে ঢুকে পড়ে। তিনি যখন বুঝতে পারেন যে জিয়াও তাকে ধর্ষণ করতে পারে, তখন তিনি আক্রমনকারীর সামনে কাশি দিতে শুরু করেন। তিনি চিৎকার করে এও বলেন যে, তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, তার বাড়ি উহানে এবং ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে তিনি পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে একা থাকছেন।

এতে ওই যুবক ভয় পেয়ে তার কাছে আর আসেনি, তবে বাসা থেকে পালিয়ে যাওয়ার আগে ইয়ির কিছু টাকা নিয়ে যায়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েছে জিংশান পুলিশ সিকিউরিটি ব্যুরো।

ইয়ি তার সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনা পুলিশকে জানালে পুলিশ ওই যুবকের খোঁজে মাঠে নামে। তবে ওই যুবকের খোঁজে মাঠে নেমে পুলিশকে বেশ ঝামেলায় পড়তে হয় কারণে সেখানে সবাই এখন করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে মাস্ক ব্যবহার করছেন।

পরে জিয়াও নিজেই তার বাবাকে সাথে পুলিশের কাছে ধরা দেয়। এখন তিনি পুলিশের হেফাজতেই রয়েছেন। তিনি নিজের দোষ স্বীকারও করেছেন।

চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত প্রাণ গেছে ৪২৫ জনের, বিশ্বজুড়ে এ সংখ্যা ৪২৭। আর আক্রান্ত ২০ হাজার ৬৭৬ জন; যার মধ্যে ৬৬৪ জন সুস্থও হয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.