Ultimate magazine theme for WordPress.

অবৈধ অভিবাসীদের ধরতে যুক্তরাষ্ট্রে চলছে অভিযান

বৈধ কাগজপত্রবিহীন অভিবাসীদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র। অভিযানকে কেন্দ্র করে শহর এলাকায় আতঙ্ক ও ভয় বিরাজ করছে। 

রবিবার (১৪ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রে এ অভিযান শুরু হয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আগেই ঘোষণা করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের দশটি শহর থেকে অভিবাসী তাড়ানো হবে।

শহরগুলো হচ্ছে- ওয়াশিংটন, নিউইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলেস, শিকাগো, হিউস্টন, আটলান্টা, বাল্টিমোর, ডেনভার, মায়ামি ও সান ফ্রান্সিসকো।

ঘোষিত ১০ শহর থেকে অন্তত পাঁচ থেকে সাত হাজার অবৈধ অভিবাসী তাড়ানোর পরিকল্পনা করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। যদিও ট্রম্পের এ পদক্ষেপের বিরোধিতা করছে শহরের মেয়র, আইনজীবী, বিরোধী দল, স্থানীয় প্রশাসন- সবাই। খবর দ্য হিল ও নিউইয়র্ক টাইমসের।

গত শুক্রবার (১২ জুলাই) প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সাংবাদিকদের জানান, ‘এদের ধরে যার যার দেশে ফেরত পাঠানো হবে। তবে এর মধ্যে কেউ অপরাধী হলে জেলে ঢোকানো হবে।

মূলত এ অভিযানের মূল উদ্দেশ্য- ‘সীমান্ত অতিক্রম করে ঢুকে পড়েছে আর ফেরত যায়নি তারা’। 

পিউ রিসার্চ সেন্টার জানায়, যুক্তরাষ্ট্রে আনুমানিক ১ কোটি ৫ লাখ অবৈধ অভিবাসী রয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রে ৩ কোটি ৫২ লাখ বৈধ অভিবাসী রয়েছেন। এছাড়া সাময়িক আইনি বৈধতা নিয়ে বসবাসকারী অভিবাসী রয়েছেন প্রায় ২২ লাখ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.