Ultimate magazine theme for WordPress.

লালমনিরহাটে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করে পালাল শিক্ষক!

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় লাজু (৩০) নামে এক প্রাইভেট শিক্ষক দ্বারা ৪র্থ শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য লাজুর পিতাকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) রাত ৮ টার দিকে ঐ উপজেলার দঃ পারুলিয়ার শিমুল তলা এলাকায় নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রীটি বর্তমানে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সে স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী। লম্পট লাজু ঐ এলাকার রাজ্জাক খলিফার ছেলে।

মেয়েটির পরিবার ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রাইভেট পড়ার সময় প্রতিবেশী লাজু ছাত্রীটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এতে শিশুটি কান্নাকাটি করলে লাজু পালিয়ে যায়। শিশুটির কান্নাকাটি শুনে তার মা বাড়িতে এসে দেখেন তার প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হচ্ছে। মেয়ের এ অবস্থা দেখে তার মা হাউমাউ করে কান্নাকাটি শুরু করলে এলাকাবাসী ছুটে এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল ও পরে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ রাতেই লাজুকে ধরার জন্য বিভিন্ন যায়গায় অভিযান চালায়। পরে ধর্ষক লাজুকে না পেয়ে তার পিতা রেজ্জাক খলিফাকে জিজ্ঞাসাবাদে জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

হাতীবান্ধা থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) উমর ফারুক বলেন, খবর পেয়ে লাজুকে গ্রেফতার করার জন্য রাতেই বিভিন্ন যায়গায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। লাজুকে গ্রেফতারের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে।

তবে এখনও ছাত্রীটির পরিবার থানা কোন লিখিত অভিযোগ না দিলেও তারা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান ঐ পুলিশ কর্মকর্তা।

তিনি আরও বলেন, লাজুকে দ্রুত গ্রেফতারের জন্য তার পিতা রাজ্জাক খলিফাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.